• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • IPL
  • »
  • KKR CAPTAIN EOIN MORGAN HOPES CHANGE OF VENUE WILL CHANGE THEIR FORTUNE RRC

PBKS vs KKR: জায়গা বদলে ভাগ্য বদল হবে নাইটদের ?

PBKS vs KKR: জায়গা বদলে ভাগ্য বদল হবে নাইটদের ?

ভাগ্য বদলের আশায় মর্গ্যান

আগামী চারটে ম্যাচ আহমেদাবাদে খেলবে কলকাতা নাইট রাইডার্স। অদ্ভুত যুক্তি দেখিয়েছেন কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান। দলের হারের পেছনে যুক্তি গ্রহণযোগ্য হোক বা না হোক, তিনি আশা করছেন জায়গা বদলে ভাগ্য বদল হবে তাঁর দলের

  • Share this:

    #মুম্বই: খবরের কাগজে অথবা টিভির বিজ্ঞাপনে এমনকি আজকাল মোবাইল ফোন খুললেও দেখা যায় এরকম আবেদন। ভাগ্য বদল করার জন্য কখনও জ্যোতিষী, কখনও পীরবাবা, কখনও ধর্মগুরু বিভিন্ন কথা বলে থাকেন। কুসংস্কারাচ্ছন্ন মানুষের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে মুনাফা লোটার লোকের অভাব নেই আজও। কিন্তু তাই বলে একটা দলের ক্রিকেট অধিনায়ক নিজে এমন আশা করেন কী করে? কিন্তু হারের পর হার সহ্য করতে করতে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান এখন ব্যাকফুটে। তিনি ক্রিকেটীয় যুক্তি ছেড়ে ভাগ্যের ওপর নির্ভর করছেন।

    জয় দিয়ে আইপিএল অভিযান শুরু হলেও পরপর চার ম্যাচে হার। চেন্নাই এবং মুম্বই পর্ব অভিশপ্ত কেটেছে নাইট রাইডার্স শিবিরের কাছে। এবার আগামী চারটে ম্যাচ আহমেদাবাদে খেলবে কলকাতা নাইট রাইডার্স। অদ্ভুত যুক্তি দেখিয়েছেন কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান। দলের হারের পেছনে যুক্তি গ্রহণযোগ্য হোক বা না হোক, তিনি আশা করছেন জায়গা বদলে ভাগ্য বদল হবে তাঁর দলের। রাজস্থানের বিরুদ্ধে টানা চার নম্বর হারের পর তিনি জানিয়েছেন প্রথম থেকেই ধীরগতিতে রান তোলার ফলে ব্যাকফুটে চলে গিয়েছিল দল।

    কম করে ৮ বল পরে রান তোলা শুরু করেন নাইট ব্যাটসম্যানরা। এর ফলে অন্তত ৪০ রান কম ওঠে। এই জায়গা আর ভরাট করতে পারেননি ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু কোনও এক বা দুজন ক্রিকেটারের ওপর দায় চাপাতে চান না। সার্বিক ব্যর্থতার কারণেই হারতে হয়েছে জানিয়েছেন ইংলিশ অধিনায়ক। পাশাপাশি তিনি আশাবাদী এরপর থেকে আহমেদাবাদে খেলতে হওয়ায় দল ফর্মে ফিরবে। যদিও এমন ভাবনার পেছনে ক্রিকেটীয় যুক্তি খুব একটা নেই। ভাগ্য বদলের আশা করছেন বলাটাই ঠিক।

    নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে উইকেটের চরিত্র সম্পর্কে এখনও ধারণা নেই কেকেআর অধিনায়কের। তবে তিনি মনে করেন বড় মাঠ হাওয়ায় তাঁদের খেলতে সুবিধা হবে। আর কী বা বলতে পারেন তিনি? মুখে কথা মানাত যদি নিজে ব্যাট হাতে রান করতে পারতেন। সেটাও পারছেন না। ধারাবাহিকতার অভাব দলে এখনও স্পষ্ট। ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে জানেন তিনি। কিন্তু সেদিকে বিশেষ কান দিতে নারাজ। আশা রাখছেন ভুলভ্রান্তি শুধরে নিয়ে দ্রুত জয়ের রাস্তায় ফিরবে দল।

    অনেক প্রাক্তন অধিনায়ক তাঁর বোলিং এবং ফিল্ডিং পরিবর্তন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। ড্রেসিংরুমে বাইরের চাপ ঢুকতে দিতে নারাজ তিনি। যাবতীয় সমালোচনা সহ্য করার জন্য তিনি আছেন। বিনিময় চান পরের পঞ্জাব ম্যাচ জিতে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনুক ক্রিকেটাররা। কিন্তু কথায় বলে সাধ এবং সাধ্যের ভেতর পার্থক্য থাকে। পঞ্জাব পরপর তিন ম্যাচে হেরে শক্তিশালী মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলকে হারিয়ে কামব্যাক করেছে। তাই আত্মবিশ্বাসের দিক থেকে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের তুলনায় অনেকটাই এগিয়ে শুরু করবেন কে এল রাহুল, ক্রিস গেইল, মহম্মদ শামিরা। আর কেকেআর অধিনায়কের জায়গা বদল ভাগ্যবদলের আশা কতটা সফল হয় উত্তর দেবে সময়।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: