corona virus btn
corona virus btn
Loading

একই বলে দু'বার আউট রশিদ খান! সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল, কী বলছেন ট্যুইটারেতিরা?

একই বলে দু'বার আউট রশিদ খান! সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল, কী বলছেন ট্যুইটারেতিরা?
Twitter screenshot | IPL 2020.

মঙ্গলবারের ম্যাচের শেষে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যান রশিদ খান কী করে আউট হলেন, তা নিয়ে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:  সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে IPL-এ জয়ের সরণিতে ফিরেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। কিন্তু মঙ্গলবারের ম্যাচের শেষে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যান রশিদ খান কী করে আউট হলেন, তা নিয়ে। ম্যাচের ১৮ ওভার পর্যন্ত লড়াই ছিল টানটান। চেন্নাই সুপার কিংস খানিকটা সুবিধাজনক অবস্থায় থাকলেও মরিয়া লড়াই দিচ্ছিল হায়দরাবাদও। চিন্তার ভাঁজ ছিল ক্যাপ্টেন কুলের কপালেও। কিন্তু ১৯তম ওভারে বল করতে এসে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিলেন তরুণ শার্দূল ঠাকুর। ডেথ ওভারে চমৎকার বোলিংয়ে হাঁসফাঁস করল হায়দরাবাদ। শার্দূলের বলেই ওভারের শেষে আউট হলেন রশিদ। জেতার জন্য শেষ সাত বলে ২২ রান দরকার ছিল হায়দরাবাদের। ম্যাচ ততক্ষণে প্রায় পুরোপুরি হেলে গিয়েছে সিএসকের দিকে। ক্রিজে থাকা রশিদ মরিয়া হয়ে ব্যাট চালাচ্ছেন। উদ্দেশ্য, যে ভাবেই হোক বাউন্ডারি বা ওভার বাউন্ডারি মেরে জয়ের শেষ আশাটুকু বাঁচিয়ে রাখা। শেষ বলে ছয় মারতে পারলে কাজটা খানিকটা সহজ হবে হায়দরাবাদের জন্য৷ কারণ সে ক্ষেত্রে শেষ ওভারে জেতার জন্য প্রয়োজন হত ১৬ রান। IPL-এর পৃথিবীতে যেটা খানিকটা শক্ত হলেও মোটেই দুঃসাধ্য কিছু নয়।

ওভারের শেষ বল করতে রান আপ শুরু করলেন শার্দূল ঠাকুর। ক্রিজের অনেকটা ভিতরে ঢুকে এসে দাঁড়ালেন রশিদ। উদ্দেশ্য স্পষ্ট। হুক বা পুল মারার সম্ভাবনা খোলা রাখা। শার্দূলের বলে সপাটে ব্যাট চালালেন রশিদ। ব্যাটে লেগে বল চলে গেল সরাসরি দীপক চহারের হাতে। কিন্তু নাটক সেখানেই শেষ নয়। দেখা গেল, তারকা আফগান স্পিনার হিট উইকেট হয়েছেন! তাঁর পায়ে লেগে উইকেট পড়ে গিয়েছে। জ্বলে উঠেছে জিং বেল। অর্থাৎ, একই বলে জোড়া আউট রশিদ। কট আউট এবং হিট উইকেট। রশিদ যখন আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন, তখনই তাঁর আউট নিয়ে তুমুল চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ তিনি কট আউট না হিট উইকেট? স্কোরকার্ড অবশ্য রশিদ হিট উইকেটই দেখিয়েছে।

কেন কট আউটের পরিবর্তে হিট উইকেট দেওয়া হল রশিদকে? জানা গিয়েছে, IPL-সংক্রান্ত বিধির ৩৩.৫ ধারা অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত।

তবে কেবল রশিদের অদ্ভুত আউটই নয়, ম্যাচের ১৯তম ওভারে ছিল আরও চমক। ১৮তম ওভারে একটি চার এবং একটি ছয় মেরে হায়দরাবাদকে ভালো ভাবেই লড়াইতে রেখেছিলেন রশিদ। তাঁকে আটকাতে ১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলটিতে অফ স্ট্যাম্পের বাইরে ইয়র্কার দেন শার্দূল। মরিয়া হয়ে ব্যাট চালিয়েও বলের নাগাল পাননি রশিদ। আম্পায়ার পল রাফায়েল বলটিতে ওয়াইডের নির্দেশ দেন। এর পর চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক ধোনিকে দেখা যায় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করতে। ধোনি এবং শার্দূল হাতের ইঙ্গিতে বোঝাতে থাকেন বলটি কোনওমতেই ওয়াইড ডেলিভারি নয়, কারণ ব্যাটসম্যান রশিদ পিচ থেকে বেরিয়ে এসেছিলেন।

ধোনিদের প্রতিবাদের মুখে আম্পায়ার তাঁর সিদ্ধান্ত বদল করেন। জানিয়ে দেন, বলটি ওয়াইড নয়, বৈধ ডেলিভারি। এই নিয়েও শোরগোল শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Published by: Debalina Datta
First published: October 14, 2020, 4:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर