Home /News /ipl /

IPL 2021: বোল্ট -চাহার ম্যাজিকে দ্বিতীয় জয় মুম্বইয়ের

IPL 2021: বোল্ট -চাহার ম্যাজিকে দ্বিতীয় জয় মুম্বইয়ের

দুর্ধর্ষ মুম্বই তুলে নিল দ্বিতীয় জয়

দুর্ধর্ষ মুম্বই তুলে নিল দ্বিতীয় জয়

টুর্নামেন্ট বাকি সব দলের থেকে কেন মুম্বই আলাদা আবার প্রমাণিত হল শনিবারের চিপকে। প্রথম ম্যাচ হেরেই শুরু করার পর যে দাপটে পরপর দুটো জয় তুলে নিল রোহিত শর্মার দল, তাতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার হ্যাটট্রিক অসম্ভব মনে হচ্ছে না

  • Share this:
    মুম্বই ইন্ডিয়ান্স জয়ী ১৩ রানে #চেন্নাই: মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের তোলা ১৫০ রান তাড়া করতে নেমে চেন্নাইয়ে শুরুটা দুর্ধর্ষ হল সানরাইজার্স দলের। অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড ওয়ার্নার এবং ইংলিশ ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো মুম্বইয়ের রক্তচাপ বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। বিশেষ করে বেয়ারস্টো। ঝড়ের গতিতে এগোচ্ছিলেন। ট্রেন্ট বোল্টের এক ওভারে কুড়ির বেশি রান তুললেন। বিশাল ছক্কায় রেফ্রিজারেটরের কাঁচ ভেঙে দিলেন। কিন্তু ক্রুনাল পান্ডিয়ার বলে অনেকটা পিছিয়ে এসে খেলতে গিয়ে হিট উইকেট হয়ে গেলেন। ৪৩ রানে থেমে গেল জনির ইনিংস। মণীশ পান্ডে ২ রান করে ফিরে গেলেন চাহারের বলে। দলের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার বুদ্ধি করে এগোচ্ছিলেন। কিন্তু ৩৭ রানের মাথায় হার্দিক পান্ডিয়ার সরাসরি থ্র উইকেট ভেঙে দিল। বিজয় শঙ্কর এবং বিরাট সিং ধৈর্য ধরে উইকেটে টিকে থাকার চেষ্টা করলেন। কিন্তু বিবেক ১১ করে চাহারের বলে ফিরে গেলেন লং অফ সূর্য কুমারের হাতে ক্যাচ দিয়ে। এরপর সানরাইজার্স দলের কাজটা যে কঠিন ছিল সেটা বোঝার জন্য ক্রিকেট পন্ডিত হওয়ার দরকার পড়ে না। বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের বিরুদ্ধে রাহুল চাহার বেশি বুদ্ধি করে বল করেন। অভিষেক শর্মা ব্যাট করতে আসেন। কিন্তু ব্যর্থতা ছাড়া কিছুই জুটল না। ২ করে বোল্টের হাতে ক্যাচ দিলেন। বোলার সেই চাহার। এই পরিস্থিতিতে ম্যাচ জেতাতে হলে যে গভীরতা দরকার তা লক্ষ্য করা গেল না সানরাইজের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে। তবে যতক্ষণ আব্দুল সামাদ ছিলেন আশা ছিল সানরাইজার্স দলের। অভিজ্ঞ বিজয় শঙ্কর লড়াই করার মানসিকতা ছাড়েননি। ক্রুনাল পান্ডিয়ার এক ওভারে পরপর দুটো ছক্কা মেরে কিছুটা আশা জাগালেন সানরাইজার্স শিবিরে। কিন্তু হার্দিক পান্ডিয়া আবার সরাসরি ছুঁড়ে ভেঙে দিলেন উইকেট। ফিরে গেলেন সামাদ। ব্যাট করতে এলেন রশিদ খান। কিন্তু খাতা না খুলেই বিদায় নিলেন বোল্টের বলে এলবি হয়ে। এই জায়গা থেকে ম্যাচ জিততে শেষ দুই ওভারে ২১ রানের প্রয়োজন ছিল সানরাইজার্স দলের। একমাত্র ভরসা ছিলেন বিজয় শঙ্কর। কিন্তু মুম্বইয়ের হাতে ট্রেন্ট বোল্ট এবং বুমরা যতক্ষণ আছেন, ততক্ষণ জেতার পাল্লা বেশি ভারী থাকবে মুম্বইয়ের দিকে, আশ্চর্যের কী? সেটাই হল। রান তোলার চাপে মারতে গিয়ে আউট হলেন বিজয়। ২৮ করে ফিরে গেলেন তিনি। মুম্বই প্রমাণ করল কেন তাঁরা ৫ বারের চ্যাম্পিয়ন।ভুবনেশ্বর কুমারের উইকেট ভেঙে দিলেন ট্রেন্ট বোল্ট। টুর্নামেন্ট বাকি সব দলের থেকে কেন মুম্বই আলাদা আবার প্রমাণিত হল শনিবারের চিপকে। প্রথম ম্যাচ হেরেই শুরু করার পর যে দাপটে পরপর দুটো জয় তুলে নিল রোহিত শর্মার দল, তাতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার হ্যাটট্রিক অসম্ভব মনে হচ্ছে না।
    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: Mumbai Indians, Sunrisers Hyderabad

    পরবর্তী খবর