IPL 2021: কেন সেদিন একা বসে ছিলেন সিঁড়িতে, জানালেন Andre Russell

IPL 2021: কেন সেদিন একা বসে ছিলেন সিঁড়িতে, জানালেন Andre Russell

কেকেআর তারকা আন্দ্রে রাসেলের সিঁড়িতে বসে থাকার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল।

কেকেআর তারকা আন্দ্রে রাসেলের সিঁড়িতে বসে থাকার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল।

  • Share this:

    #মু্ম্বই:

    আউট হওয়ার পর তাঁর সোজা প্যাভিলিয়নে যাওয়ার কথা। কিন্তু তিনি মাঝপথে সিঁড়িতে বসে পড়েছিলেন। চেন্নাই সুপার কিংসের বোলার স্যাম কুরানের দুরন্ত একটি ডেলিভারিতে লেগ স্টাম্প উড়ে যায়। ৩১ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল কেকেআর। সেই সময় আন্দ্রে রাসেল নেমে সমর্থকদের মনে জয়ের আশা জাগিয়েছিলেন। কিন্তু স্যাম কুরানের একটি ডেলিভারি সব স্বপ্ন চুরমার করে দিয়ে যায়। এর পরেই রাসেলকে হতাশা গ্রাস করেছিল। তিনি আর ড্রেসিংরুমে ফেরেননি। সিঁড়ির উপর মাথা নিচু করে বসে পড়েন। এতদিন এই ব্যাপারে কিছু জানাননি রাসেল। এবার জানালেন, তিনি সেদিন কতটা হতাশাগ্রস্ত হয়ে ছিলেন!

    কেকেআর তারকা আন্দ্রে রাসেলের সিঁড়িতে বসে থাকার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। দ্রে রাস জানালেন, সেদিন ড্রেসিংরুমে ফিরে তাঁর আর সতীর্থদের মুখোমুখি হওয়ার সাহস ছিল না। তার উপর ছিল প্রবল হতাশা। কুরানের ডেলিভারিতে আউট হওয়ার পর তাঁর আর কিছু ভাল লাগছিল না। তাই কিছুটা সময় একা থাকতে চেয়েছিলেন। অনেকক্ষণ তিনি বসেছিলেন সিঁড়িতেই। চেন্নাইয়ের ২২১ রান তাড়া করতে নেমেছিল কেকেআর। তারপর ৩১ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে কেকেআরের করুণ অবস্থা হয়। সেখান থেকে ২১ বলে হাফ সেঞ্চুরি করে জয়ের আশা জাগিয়েছিলেন রাসেল। ছটি ছক্কা মেরেছিলেন সেদিন তিনি। দীনেশ কার্তিকের সঙ্গে জুটি বেঁধে কেকেআরের ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন দ্রুতগতিতে। কিন্তু শ্যাম কুরানের একটি ডেলিভারি ছন্দপতন।

    কেকেআরের ওয়েবসাইটে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাসেল বলেছেন, ওই ম্যাচে আউট হওয়ার পর আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলাম। ওরকম একটা ডেলিভারিতে বোল্ড হই। তার পর কি করে ড্রেসিং রুমে গিয়ে সতীর্থদের মুখোমুখি হব, সেটাই ভেবে পাচ্ছিলাম না! আমি সেদিন ম্যাচটা ফিনিশ করে আসতে চেয়েছিলাম। তাই ম্যাচ শেষ হওয়া পর্যন্ত সিঁড়িতেই ছিলাম। জানি আস্কিং রেট বেশি ছিল। তবুও আমি ফ্রিজে থাকলে সবই সম্ভব। মারকুটে ইনিংস এর আগেও অনেক খেলেছি। কেকেআর সর্মথকরা সেটা জানে। রাসেল আউট হওয়ার পরও অবশ্য প্যাট কামিন্স কেকেআরের ইনিংস টানছিলেন। শেষমেষ কামিন্সের দাপটে ২০২ রানে শেষ করে নাইটরা।

    Published by:Suman Majumder
    First published: