• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • IPL
  • »
  • AB DE VILLIERS HALF CENTURY PUTS RCB TO A FIGHTING TOTAL AGAINST DELHI CAPITALS RRC

DC vs RCB: ডিভিলিয়ার্সের লড়াকু অর্ধশতরানে ১৭১ তুলল আরসিবি

DC vs RCB: ডিভিলিয়ার্সের লড়াকু অর্ধশতরানে ১৭১ তুলল আরসিবি

একা লড়লেন ডি ভিলিয়ার্স

তখনও ছিলেন ডি ভিলিয়ার্স। দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তি যতক্ষণ থাকবেন, তাঁকে নিয়ে ভবিষ্যৎবাণী চলে না। একার হাতে ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন

  • Share this:

    #আমেদাবাদ: টস জিতে ঋষভ পন্থ যে বল করার সিদ্ধান্ত নিয়ে সঠিক কাজ করেছিলেন তা প্রমাণ হতে থাকল প্রথম থেকেই। চেন্নাই ম্যাচের পর আবার ব্যর্থ বিরাট কোহলি। ১২ রান করে প্লেড অন হলেন আবেশ খানের বলে। এদিন প্রথম দিল্লির হয় মাঠে নামলেন ইশান্ত শর্মা। দুর্ধর্ষ ফর্মে থাকা দেবদত্তকে বোল্ড করলেন অনবদ্য লেগ কাটারে। ১৭ করে ফিরলেন দেবদত্ত। বুঝিয়ে দিলেন কেন তিনি ভারতের জার্সিতে একশোর বেশি টেস্ট খেলেছেন।

    ম্যাক্সওয়েল শুরুটা খুব ভাল করেছিলেন। ২৫ রান করলেন দুটি ওভার বাউন্ডারি এবং একটি বাউন্ডারির সাহায্যে। অমিত মিশ্রর বলে ধরা পড়লেন স্মিথের হাতে।শেষপর্যন্ত দায়িত্ব নিয়ে খেললেন ডি ভিলিয়ার্স। বয়স বাড়লেও দক্ষতা কমেনি আবার প্রমাণ করলেন। প্রথমদিকে ব্যাটিং ব্যর্থতা ঢেকে দিলেন লড়াকু ৭৫ রানের ইনিংস খেলে। শেষ ওভারে নিলেন ২৩ রান।

    রজত পতিদার ৩১ করে ফিরে গেলেন। উইকেট পেলেন অক্ষর প্যাটেল। কিন্তু তখনও ছিলেন ডি ভিলিয়ার্স। দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তি যতক্ষণ থাকবেন, তাঁকে নিয়ে ভবিষ্যৎবাণী চলে না। একার হাতে ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন। অন্যদিকে ছিলেন ওয়াশিংটন সুন্দর। লড়াই চালিয়ে গেলেন দুজনে।সুন্দর ফিরে গেলেন ৬ করে। নিজেদের শেষ ম্যাচে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস দলের কাছে বড় ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল বিরাট কোহলির আরসিবি। প্রথমদিকে ভাল শুরু করেও মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় হারতে হয়েছিল লাল জার্সিধারীদের।

    বিরাট কোহলি নিজে পাশাপাশি, ব্যর্থ হয়েছিলেন ডি ভিলিয়ার্স এবং ম্যাক্সওয়েল। টুর্নামেন্টের অন্যতম সফল বোলার হর্ষল প্যাটেল শেষ ওভারে দিয়েছিলেন ৩৭ রান। আজ মঙ্গলবার নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে দিল্লি ক্যাপিটালস দলের বিরুদ্ধে নামছে আরসিবি। পয়েন্টের বিচারের দুটো দলই একই জায়গায় রয়েছে। রানরেটের বিচারে এগিয়ে রয়েছে দিল্লি। দুই দলেই বড় শট খেলার ক্রিকেটার রয়েছেন একাধিক।

    ঋষভ পন্থ, শিখর ধাওয়ান, হেঁট মায়ার, স্তোইনিসদের মত অস্ত্র যদি দিল্লির হাতে থাকে, তাহলে অন্যদিকে আরসিবি দলের হাতে রয়েছে বিরাট, দেবদত্ত, ডিভিলিয়ার্স,ম্যাক্সওয়েলদের মত ধ্বংসাত্মক ব্যাটসম্যান। পরিবারের একাধিক সদস্য করোনা পজিটিভ হওয়ায় বাড়ি ফিরে গিয়েছেন অশ্বিন। কিন্তু তাছাড়াও অমিত মিশ্র এবং করোনা ভাইরাস থেকে ফিট হয়ে দলে আসা অক্ষর প্যাটেল দলের শক্তি বাড়িয়েছেন। জোরে বোলিং বিভাগে দক্ষিণ আফ্রিকার রাবাডা দিল্লির সম্পদ।

    ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে পৃথ্বী শ নিজের দিনে যেকোনও বোলিং লাইন আপকে ধ্বংস করে দিতে পারেন। একদিকে বিদেশি ক্রিকেটাররা যখন করোনার ভয়ে ভারত ছেড়ে দেশে ফিরে যাচ্ছেন, তখন এই দুই দলের বিদেশিরা কিন্তু মোটেই ভীত নন। বায়ো বাবল নিয়ে যথেষ্ট নিরাপদ মনে করছেন নিজেদের। একদিকে অধিনায়ক বিরাট কোহলি, অন্যদিকে তরুণ ঋষভ পন্থ। লড়াই জমবে সেকথা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়।

    মাথায় রাখতে হবে চেন্নাই ম্যাচ হারার আগে টানা চারটি ম্যাচ জিতে এসেছিল আরসিবি। এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অন্যতম দাবিদার মনে করা হচ্ছে বিরাট কোহলির দলকে। অতীতে তিনবার ফাইনালি উঠলেও একবারও চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি আরসিবি। অন্যদিকে গতবার ফাইনালে উঠে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের কাছে হারতে হয়েছিল দিল্লিকে। ফলে এই ম্যাচটা যে লড়াই হবে তাতে সন্দেহ নেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: