• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • ipl
  • »
  • 38 MEMBERS OF AUSTRALIAN CRICKETERS INCLUDING COMMENTATORS AND COACHES LANDED IN SYDNEY RRC

অবশেষে ! দেশের মাটিতে পা রাখলেন ওয়ার্নার, স্মিথরা

নিয়মের বেড়াজাল কাটিয়ে দেশের মুখ দেখলেন অজিরা

মলদ্বীপে প্রায় ১৪ দিন কাটানোর পর অবশেষে দেশে ফিরলেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার এবং কোচেরা। সোমবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ সিডনিতে ৩৮ জনের দল এসে নামে

  • Share this:

    #সিডনি: দীর্ঘদিন অনিশ্চয়তায় থাকার পর শেষপর্যন্ত হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ, ধারাভাষ্যকারেরা। আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে এর আগে এত জটিল সমস্যায় পড়তে হয়নি তাঁদের। কিন্তু ভরসা ছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ওপর। দেশে না ফেরানো পর্যন্ত বিসিসিআইয়ের দায়িত্ব শেষ নয় জানিয়েছিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বোর্ড। মলদ্বীপে প্রায় ১৪ দিন কাটানোর পর অবশেষে দেশে ফিরলেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার এবং কোচেরা। সোমবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ সিডনিতে ৩৮ জনের দল এসে নামে।

    এবার সিডনির বিভিন্ন হোটেলে ১৪ দিন নিভৃতবাসে থাকবেন তাঁরা। গত ৪ মে আইপিএল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরেই অস্ট্রেলিয়ার প্রত্যেকে মলদ্বীপে চলে আসেন। সেখানেও নিভৃতবাসেই ছিলেন তাঁরা। এ বার দেশে ফিরেও নিভৃতবাসে থাকতে হচ্ছে তাঁদের। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন জানিয়েছেন, ক্রিকেটারদের জন্য বাড়তি কোনও সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। সাধারণ মানুষ যে ভাবে নিভৃতবাসে থাকছেন, তাঁরাও সে ভাবেই থাকবেন।

    অস্ট্রেলিয়ার ফেরত যাওয়ার উড়ান ভাড়া এবং নিভৃতবাসের খরচ বহন করছে বিসিসিআই। এদিকে, রবিবার রাতের দিকে ইংল্যান্ডে পা রাখলেন বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ খেলতে চলা নিউজিল্যান্ড দলের কিছু সদস্য। অকল্যান্ড থেকে সিঙ্গাপুর হয়ে তাঁরা হিথরোয় নামেন। তবে কেন উইলিয়ামসন, কাইল জেমিসনের মতো আইপিএল-এ অংশ নেওয়া খেলোয়াড়রা সোমবার দুপুরের দিকে ইংল্যান্ডে যাবেন।

    অকল্যান্ড থেকে যাওয়া দলে ছিলেন টিম সাউদি, বি জে ওয়াটলিং, রস টেলর এবং নিল ওয়াগনার। তাঁরা সোমবার রওনা দিয়েছেন ইংল্যান্ডের উদ্দেশে। দেশের মাটিতে পা দেওয়ার পর প্রত্যেকেই স্বস্তি অনুভব করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের দায়বদ্ধতা এবং পেশাদারিত্বের প্রশংসা করেছেন ক্রিকেটার থেকে শুরু করে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ড।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: