• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ক্লান্ত সিংহীর শাবককে শুঁড়ে বসিয়েছে গজরাজ, ভাইরাল ছবিটি আসলে এপ্রিল ফুল প্র্যাঙ্ক

ক্লান্ত সিংহীর শাবককে শুঁড়ে বসিয়েছে গজরাজ, ভাইরাল ছবিটি আসলে এপ্রিল ফুল প্র্যাঙ্ক

elephant carrying a lion cub

elephant carrying a lion cub

ক্লান্ত সিংহীর শাবককে শুঁড়ে বসিয়েছে গজরাজ। দক্ষিণ আফিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের পাশাপাশি সিংহী ও হাতির হাঁটার ছবিটা ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ক্লান্ত সিংহীর শাবককে শুঁড়ে বসিয়েছে গজরাজ। দক্ষিণ আফিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের পাশাপাশি সিংহী ও হাতির হাঁটার ছবিটা ৷ টুইটারে আপলোড হতেই মুহূর্তে ভাইরাল। ভেদাভেদ ভুলে পশুরা যা পারে, তা মানুষ কেন পারে না? ওঠে এমন প্রশ্নও। না, ছবিটা সত্যি নয়। ইয়াসর আলি নামে এক লেখকের দাবি, এমন এপ্রিল ফুল প্র্যাঙ্কে মন ভাল হয়ে যায়।

    একজন নিখাদ তৃণভোজী। আরেকজন আবার বনের রানি। মেজাজেও দু'জনের বিস্তর ফারাক। একদিন হঠাৎ রাস্তায় দেখা। জানান না দিলেও গজরাজ টের পেয়ে যায় রোদে হেঁটে হেঁটে ক্নান্ত সিংহী। ব্যস, সাহায্য করতে দু'বার ভাবেনি সে। শুঁড় বাড়িয়ে দিতেই লাফ মেরে উঠে পড়ে সিংহছানা। নিশ্চিন্ত হয়ে হাতির পাশে পথ চলা শুরু করে সিংহীও।

    দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের এই ছবিটি টুইটারে আপলোড করেন ইয়াসর আলি নামে এক লেখক, সাংবাদিক। দুই আলাদা শ্রেণির প্রাণী হলেও আমরা-ওরা ভুলে এগিয়ে যাওয়ার উদাহরণ রেখে যায় ছবিটি। চোখের পলকে ভাইরালও হয়ে যায় বন্ধুত্বের এই ছবি। তবে কিছুক্ষণ পরেই পর্দা সরে। লেখক ইয়াসর আলি টুইটারেই জানান, এপ্রিল ফুল বানিয়েছেন তিনি। ক্রুগার ন্যাশনাল পার্কের আসল ছবিটিও আপলোড করেন তিনি। দু'হাজার ছ'সালে হাতির ছবিটি তোলা হয়। আলাদা করে তোলা হয়েছিল সিংহী ও খুদে সিংহের ছবিও। পরে ফটোশপ করে হাতির সঙ্গে সিংহী ও ছানার ছবি বসানো হয়েছে। ফুল হয়েও অবশ্য কুল থেকেছেন নেটিজেনরা। রেগে যাননি কেউই। এমন বোকা হয়ে মন খারাপ হয় না।

    বহু সংবাদপত্রের প্রথম পাতায় এই ছবি বিভেদ মোছার বার্তাও দিয়ে যায়। বুঝিয়ে দিয়ে যায়, কিছুই অলীক কল্পনা নয়। ভাল থাকা আর ভাল রাখার দিন তৈরি করতে পারি আমরাই।

    First published: