Viral: বাড়ির সামনে অবাধে ঘুরছে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, গলায় কলার বাঁধা! তার পর যা হল দেখুন ভিডিওয়

প্রাথমিক ভাবে আরও খোঁজ খবরের পর মনে করা হচ্ছে, এই বাঘটি কারও পোষ্য।

প্রাথমিক ভাবে আরও খোঁজ খবরের পর মনে করা হচ্ছে, এই বাঘটি কারও পোষ্য।

  • Share this:

#টেক্সাস: সে এক অদ্ভুত কাণ্ড! রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার না কি ঘুরে বেড়াচ্ছে বাড়ির সামনের বাগানে। তার চলন দেখে বোঝারও উপায় নেই যে, সে জঙ্গল ছেড়ে ঢুকে পড়েছে লোকালয়ে। দূর থেকে একজন তার দিকে বন্দুক তাক করলেও তার যেন কোনও হেলদোলই নেই। সোমবার সকালে টেক্সাসের হিউস্টনের এক বাসিন্দা এই ভিডিওটি শেয়ার করেন। ভিডিওটি দেখে যথেষ্ট আতঙ্কিত এলাকাবাসী। এরপরেই তড়িঘড়ি বন্য প্রাণী সম্পর্কে পুলিশে খবর দেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

হিউস্টন পুলিশ কমান্ড কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, আতঙ্কিত বাসিন্দা পুলিশকে জানিয়েছে, বাঘের গলায় একটি কলার ছিল। প্রাথমিক ভাবে আরও খোঁজ খবরের পর মনে করা হচ্ছে, এই বাঘটি কারও পোষ্য।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, গলায় কলার পরিহিত একটি বড় বিড়ালের মতো একটি প্রাণী আবাসিক অঞ্চলে ঘোরাঘুরি করছে। ভিডিওতে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তিকেও দেখা যায়। তাঁকে এই বন্য প্রাণীটির দিকে বন্দুক তাক করে বলছে, ভেতরে যাও। তুমি এবং তোমার বাঘসহ ভেতর যাও। ওই বাঘের মালিক হিসেবে দাবি করা ব্যক্তি বলেন, আমি তাকে ভেতরে নিয়ে যাচ্ছি।

তবে এই ঘটনায় ভিক্টর হুগো কিউভাস নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশের অনুমান, বেআইনি ভাবে বাঘটিকে পুষেছিলেন ভিক্টর। তবে বাঘটির মালিক গ্রেফতার হলেও এখনও মেলেনি সেই বাঘের সন্ধান। ফলে আরও বেশি আতঙ্কিত হচ্ছেন হিউস্টনের বাসিন্দারা।

পুলিশ সুত্রে পাওয়া খবর অনুসারে, শুধু বাঘ নয়, বেআইনি ভাবে হুগো তার বাড়িতে বাঁদরও পুষেছিলেন। যদিও হুগোর বিরুদ্ধে পুলিশের বাঘ পোষার এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে তার আইনজীবী। তবে ভিডিওতে বন্দুক হাতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন হুগোই তার জিপে করে বাঘটিকে নিয়ে আসেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এই ভিডিওটির ভিউজ পাঁচ লক্ষ ছাড়িয়েছে। এবং এখনও পর্যন্ত ওই বাঘ থেকে আহত হওয়ার কোনও খবর মেলেনি।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: