ফ্রিতে Netflix, সঙ্গে পিৎজা, মিলবে ৩৬ হাজার টাকাও; কিন্তু কী করতে হবে?

ফ্রিতে Netflix, সঙ্গে পিৎজা, মিলবে ৩৬ হাজার টাকাও; কিন্তু কী করতে হবে?

শুধু এই নয়, পিৎজা খাওয়া ও নেটফ্লিক্স দেখার জন্য সকলে পেয়ে যাবে ৫০০ ডলার। যার ভারতীয় বাজারে মূল্য ৩৬ হাজার ৫৭৫ টাকা।

শুধু এই নয়, পিৎজা খাওয়া ও নেটফ্লিক্স দেখার জন্য সকলে পেয়ে যাবে ৫০০ ডলার। যার ভারতীয় বাজারে মূল্য ৩৬ হাজার ৫৭৫ টাকা।

  • Share this:

টাকা দিয়ে নেটফ্লিক্স (Netflix) দেখা, পিৎজা খাওয়া খুব সাধারণ বিষয়। নেটফ্লিক্সের পিছনে ছুটতে কত টাকাই না খরচ হয়ে যায়। কিন্তু আমেরিকার এক সংস্থা একদম ফ্রিতে নেটফ্লিক্স দেখার সুবিধা দিচ্ছে। তাও আবার ফ্রিতে পিৎজা খেতে খেতে। শুধু এই নয়, পিৎজা খাওয়া ও নেটফ্লিক্স দেখার জন্য সকলে পেয়ে যাবে ৫০০ ডলার। যার ভারতীয় বাজারে মূল্য ৩৬ হাজার ৫৭৫ টাকা।

শুনে নিশ্চয়ই মনে হচ্ছে, এই অফার দিলে লুফে নিতাম? হ্যাঁ, অনেকেরই মনে হতে পারে। কিন্তু এই অফার সকলের জন্য দিচ্ছে না ওই সংস্থা। তাদের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, ২০২১ সে ভাবে আনন্দে শুরু করতে না পারার জন্য ও পাশাপাশি লকডাউন ফিরে আসার জন্য অনেকেরই মন খারাপ। এই পরিস্থিতি থেকে বের হতেই এমন অফার নিয়ে হাজির হয়েছে তারা। BonusFinder নামের ওই সংস্থার তরফে দাবি করা হয়েছে, এর জন্য তাদের এমন একজনকে প্রয়োজন যে নেটফ্লিক্স ভক্ত। ওয়ার্ল্ড পিৎজা ডে ৯ ফেব্রুয়ারিতে তারা সেই সব মানুষকে নিয়োগ করবে। এবং ওই দিন তারা সারাদিন পিৎজা খেয়ে নেটফ্লিক্স দেখবে। এই কাজের জন্য দিনের শেষে তাদের ৫০০ ডলার করেও দেওয়া হবে। যাঁরা মনে করছেন, এটা খুবই সহজ, তাঁরা ভুল ভাবছেন। কারণ এখানে শুধুই বসে পিৎজা খাওয়া ও নেটফ্লিক্স দেখা নেই। এখানে ছোট্ট কিছু কাজও তাঁদের করতে হবে। নেটফ্লিক্সে যে ক'টি শো তাঁরা দেখবেন, সবক'টির রেটিং তাঁদের দিতে হবে। শুধু শো'র রেটিং নয়, অভিনয়, চিত্রনাট্য-সহ একাধিক ক্যাটেগরি রয়েছে এ ক্ষেত্রে। পাশাপাশি পিৎজাও যে ফ্রিতে তাঁরা খাবেন, তারও বিভিন্ন বিভাগে রেটিং দিতে হবে। যে জব ডেসক্রিপশন দেওয়া হয়েছে সংস্থার পক্ষ থেকে, তাতে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তিনটে করে শো ও তিনটে করে পিৎজা খেতেই হবে। এই পদে আবেদন করার জন্য প্রথমেই প্রাথমিক কিছু তথ্য দিতে হবে। নাম, ঠিকানা, ফোন নম্বর। ও তার পরে কেন এই কাজের জন্য আবেদন জানাচ্ছেন, সেটাও উল্লেখ করতে হবে। এই ধরনের কাজ এই প্রথম নয়। এর আগে বেঙ্গালুরুর Wakefit নামের একটি কোম্পানি স্লিপ ইন্টার্নশিপ শুরু করেছিল। যেখানে ঘুমোনোর জন্য ১ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হচ্ছিল। সে ক্ষেত্রে শর্ত দেওয়া হয়েছিল, একজনকে রাতে ৯ ঘণ্টা ঘুমোতে হবে।
Published by:Elina Datta
First published:

লেটেস্ট খবর