Home /News /international /

পাকিস্তানের সোয়াত উপত্যকায় উদ্ধার হল ১৩০০ বছরের পুরনো বিশালাকার বিষ্ণু মন্দির

পাকিস্তানের সোয়াত উপত্যকায় উদ্ধার হল ১৩০০ বছরের পুরনো বিশালাকার বিষ্ণু মন্দির

খননকার্যের সময় মন্দিরের পাশেই একটি ওয়াচ টাওয়ার এবং একটি সেনানিবাসেরও সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা । পাওয়া গিয়েছে একটা সুবিশাল জলের ট্যাঙ্কও ।

  • Share this:

    #ইসলামাবাদ: প্রায় ১৩০০ বছরের পুরনো হিন্দু মন্দিরের সন্ধান মিলল পাকিস্তানের সোয়াত উপত্যকা থেকে । জানা গিয়েছে, বিষ্ণু দেবতার মন্দির ছিল সেটি । পাকিস্তান এবং ইতালির আর্কিওলজিস্টদের যৌথ প্রচেষ্টায় এই মন্দিরটির সন্ধান মিলেছে । বারিকোট ঘুন্ডাইয়ে একটি খননকার্য চালানোর সময় এই মন্দিরটির সন্ধান পান প্রত্নতত্ত্ববিদরা ।

    গত বৃহস্পতিবার এই মন্দিরের সন্ধান পাওয়ার পর খাইবার পখতুনখাওয়া বিপার্টমেন্ট অব আর্কিওলজির প্রত্নতত্ত্ববিদ ফাজেল খালিক বলেছেন মন্দিরটি হিন্দু দেবতা বিষ্ণুর । হিন্দু শাহী আমলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা প্রায় ১৩০০ বছর আগে এই সুবিশাল মন্দির বানিয়েছিলেন । হিন্দু সহিস বা কাবুল সহিস ছিল হিন্দু রাজস্ব । পূর্ব আফগানিস্তানের কাবুল উপত্যকা, গান্ধারা (বর্তমানের পাকিস্তান-আফগানিস্তান) এবং উত্তর-পশ্চিম ভারত জুড়ে এদের রাজত্ব বিস্তৃত ছিল ।

    খননকার্যের সময় মন্দিরের পাশেই একটি ওয়াচ টাওয়ার এবং একটি সেনানিবাসেরও সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা । পাওয়া গিয়েছে একটা সুবিশাল জলের ট্যাঙ্কও । মনে করা হচ্ছে, মন্দিরে প্রবেশের আগে সেই জলে নিজেদের পবিত্র করে নিতে ভক্তরা ।

    ফাজেল খালিক আরও বলেছেন, এই সোয়াত জেলায় আগেও প্রচুর প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাওযা গিয়েছে । হিন্দু রাজত্বের প্রমাণ প্রথম এই এলাকা থেকেই পাওয়া গিয়েছিল । ইটালিয়ান আর্কিওলজিক্যাল মিশনের প্রধান ডঃ লুকা বলেছেন, গান্ধারা সভ্যতার প্রথম নির্দশনও এই সোয়াত জেলা থেকেই পাওয়া গিয়েছিল । এমনকি এই এলাকায় বৌদ্ধ ধর্মেরও বহু নিদর্শন পাওয়া গিয়েছে ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    Tags: Lord Vishnu, Pakistan, Vishnu Temple

    পরবর্তী খবর