বিদেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

'সন্ত্রাসবাদ ও বেআইনি পরমাণু ব্যবসা, ৭০ বছরে পাকিস্তানের গৌরব,' রাষ্ট্রসঙ্ঘে কড়া জবাব ভারতের

'সন্ত্রাসবাদ ও বেআইনি পরমাণু ব্যবসা, ৭০ বছরে পাকিস্তানের গৌরব,' রাষ্ট্রসঙ্ঘে কড়া জবাব ভারতের
মিজিতো ভিনিতো

রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৫তম সাধারণ সভায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিবৃতির কড়া জবাব দিল ভারত৷

  • Share this:

#নিউ ইয়র্ক: কড়া জবাব আসছে, আগেই হুঁশিয়ারি দিয়েছিল ভারত৷ ঘটলও তাই! সন্ত্রাসবাদ, আদিবাসীদের সাফ, সংখ্যাগুরু মৌলবাদ, পরমাণুর গোপন ব্যবসা৷ এই হল গত ৭০ বছরে পাকিস্তানের গৌরব৷ রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৫তম সাধারণ সভায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিবৃতির কড়া জবাব দিল ভারত৷

রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী মিশনে ফার্স্ট সেক্রেটারি মিজিতো ভিনিতো বলেন, ' রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৫তম সাধারণ সভা সাক্ষী থাকল এক নতুন ধরনের নীচুমানের কূটনীতির৷ পাকিস্তানের রাষ্ট্রনেতা হিংসা ও বিদ্বেষে প্ররোচনা জোগাচ্ছে যারা, তাদের হয়ে কথা বললেন৷ কিন্তু উনি কি নিজেদের দিকে তাকিয়েছেন? এই সভা এমন একজনের দীর্ঘ গলাবাজি শুনল, যাঁর বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার মতো কিছু নেই৷ বলার মতো কিছু নেই৷ বিশ্বের উপকারে কিছু ভাল পরামর্শ দেওয়ার মতোও কিছু নেই৷ আমরা দেখলাম মিথ্যে, যুদ্ধে উস্কানিমূলক কিছু বিভ্রান্তিকর বক্তব্য শোনা গেল এই সভার মাধ্যমে৷'

আরও পড়ুন: রাষ্ট্রসঙ্ঘের সভায় হঠাত্‍ কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে সরব ইমরান, ওয়াক-আউট করল 'ক্ষুব্ধ' ভারত

এরপরেই পাকিস্তানকে কটাক্ষ করে ভিনিতো বলেন, 'গত ৭০ বছরে বিশ্বের কাছে তুলে ধরার মতো পাকিস্তানের একমাত্র গৌরব হল, সন্ত্রাসবাদ, আদিবাসীদের সাফ, সংখ্যাগুরু মৌলবাদ, পরমাণুর গোপন ব্যবসা৷' সেই সঙ্গে লস্কর ই তৈবা প্রধান হাফিজ সইদ, জইশ ই মহম্মদের মাসুদ আজহারের উদাহরণও টানেন তিনি৷ ভিনিতো আরও বলেন, 'এই সেই দেশ, যারা গ্লোবাল টেররিস্টদের পেনশন দেয়৷ যে রাষ্ট্রনেতার বক্তব্য আজ আমরা শুনলাম, তিনি ওসামা বিন লাদেনকে শহিদ আখ্যা দিয়েছিলেন গত জুলাইয়ে নিজের দেশের সংসদে দাঁড়িয়ে৷ ৩৯ বছর আগে দক্ষিণ এশিয়ায় গণহত্যা চালিয়েছিল এই পাকিস্তান৷ নিজেদের দেশের মানুষদেরই খুন করেছিল৷ এত বছর পরেও ক্ষমা চাওয়ার প্রয়োজন মনে করেনি৷'

ভিনিতোর কথায়, 'আজ যিনি রাষ্ট্রসঙ্ঘে বিষোদগার করলেন, তিনি ২০১৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সর্বসমক্ষে স্বীকার করেছিলেন, পাকিস্তানে এখনও ৩০ থেকে ৪০ হাজার জঙ্গি রয়েছে, যারা পাকিস্তানে প্রশিক্ষণ নিয়ে আফগানিস্তান ও জম্মু-কাশ্মীরে ভারতের অংশে হামলা চালাচ্ছে৷ এই সেই দেশ, যারা ধাপে ধাপে সংখ্যালঘুদের সাফ করছে৷ তার মধ্যে হিন্দু, খ্রিস্টান, শিখ সহ অন্যান্যরা রয়েছেন৷ ইসলামোফোবিয়ার কথা তুলে চিত্‍কার করা আপনাদের মানায় না৷ পাকিস্তান সেই দেশ, যারা তাদের দেশের একটি নির্দিষ্ট অংশের মুসলিমদের উপর দিনের পর দিন অত্যাচার করছে৷'

রাষ্ট্রসঙ্ঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে হঠাত্‍ কাশ্মীর ইস্যু ও ভারত নিয়ে সমালোচনা করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ যার নির্যাস, রাষ্ট্রসঙ্ঘের ৭৫তম সাধারণ সভা থেকে ওয়াক আউট করে ভারত৷ রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টিএস তিরুমূর্তি পাক প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে নীচু মানের কূটনীতি বলে ব্যাখ্যা করেন৷

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী কাশ্মীর ও ভারত প্রসঙ্গে নিন্দা শুরু করতেই, ভার্চুয়াল সেশন থেকে ওয়াক-আউট করেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী মিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি মিজিতো ভিনিতো৷ ট্যুইটারে তিরুমূর্তি লেখেন, 'পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি এক ধরনের নতুন নীচু মানের কূটনীতি৷ পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার ও সীমান্ত সন্ত্রাস থেকে বিশ্বকে বিভ্রান্ত করতে বিরক্তিকর, বিদ্বেষপূর্ণ মিথ্যে, ব্যক্তিগত আক্রমণ, যুদ্ধে উস্কানিমূলক বিবৃতি৷ কড়া জবাব আসছে৷'

Published by: Arindam Gupta
First published: September 26, 2020, 9:13 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर