কোভিড নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় উৎসব শুরু স্পেনে

কারফিউ শেষে রাস্তায় পার্টি স্প্যানিশদের

স্পেনে করোনা সংক্রান্ত সরকারি বিধি নিষেধ উঠে যাওয়ায় রাস্তায় নেমে হৈ-হুল্লোড় মেতেছে সাধারণ মানুষ। অথচ কয়েক মাস আগেও দক্ষিণ পশ্চিম ইউরোপের এই দেশটির অবস্থা ছিল বেশ খারাপ

  • Share this:

    #মাদ্রিদ: কথায় বলে কারও পৌষ মাস, তো কারও সর্বনাশ। একদিকে যখন করোনা ভাইরাসের দাপটে ভারতে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন, নতুন নতুন রেকর্ড স্থাপন হচ্ছে, তখন কয়েক হাজার কিলোমিটার দূরের দেশ স্পেনে করোনা সংক্রান্ত সরকারি বিধি নিষেধ উঠে যাওয়ায় রাস্তায় নেমে হৈ-হুল্লোড় মেতেছে সাধারণ মানুষ। অথচ কয়েক মাস আগেও দক্ষিণ পশ্চিম ইউরোপের এই দেশটির অবস্থা ছিল বেশ খারাপ। কিন্তু তারপর থেকে নিখুঁত পরিকল্পনা করে অনেকটাই সাফল্য পেয়েছে স্প্যানিশ কর্তৃপক্ষ।

    সব নিয়ম শিথিল না হলেও অনেকটাই শিথিল করে দেওয়া হয়েছে মানুষের দৈনন্দিন জীবন। ঘরবন্দী মানুষের কাছে এটা যেন এক টুকরো মুক্ত বাতাস। কোভিড মহামারি নিয়ন্ত্রণে আসায় এ সংক্রান্ত বাধানিষেধ তুলে নিয়েছে স্পেন। এ উপলক্ষে রাস্তায় নেমে উৎসব করেছেন দেশটির হাজার হাজার মানুষ। এসময় তাঁরা নাচে গানে মেতে ওঠেন। অনেককেই 'স্বাধীনতা, স্বাধীনতা' বলে স্লোগান দেয় রাস্তায়। এ খবর দিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

    খবরে বলা হয়, শনিবার রাজধানী মাদ্রিদের পুয়ের্তা দেল সল স্কয়ারে জড়ো হন হাজারো মানুষ। ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনের মতো করে তাঁরা সেখানে নানা আয়োজনে মেতে ওঠেন। বেশিরভাগই বয়সে ছিল তরুণ। তবে উৎসবে যোগ দিয়েছেন অনেক বয়স্করাও। বড় উৎসব দেখা গেছে বার্সেলোনাতেও। সেখানে সমুদ্রতীরে বিচ পার্টিতে যোগ দিয়েছেন শত শত মানুষ। যদিও কার্ফিউয়ের সময় আরো ২ ঘন্টা বাকি থাকায় পুলিশ শেষবারের মতো কড়াকড়ি করেছে কিছু জায়গায়।

    তবে রাত ১২ টার পরেই মানুষের ঢল নামে রাস্তায়। একে অপরকে জড়িয়ে ধরে নাচ গান করতে থাকে তরুণরা। ২৮ বছর বয়সী পাউলা গার্সিয়া বলেন, আমাদের মতো তরুণরা গত কয়েকদিন ধরে আটকা পরে ছিলাম। এখন আমরা এই গ্রীষ্মটা উপভোগ করার স্বাধীনতা পেয়েছি" ।

    স্পেনের প্রিয় খেলা ফুটবল চালু আছে, যদিও মাঠে ঢোকার অনুমতি নেই দর্শকদের। কিন্তু বুল ফাইটিং আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। স্প্যানিশ সরকার প্রতিটা পদক্ষেপ বুঝে ফেলছে। ভারতের মত বিশাল জনসংখ্যার দেশে যে ব্যাপারটা করা অত্যন্ত কঠিন কাজ, স্পেনে সেটা করা তুলনামূলকভাবে অনেক সহজ।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: