'শিখ হওয়ার অপরাধে' পাকিস্তানে ট্রাফিক পুলিশকে হেনস্থা

'শিখ হওয়ার অপরাধে' পাকিস্তানে ট্রাফিক পুলিশকে হেনস্থা
ছবি সৌজন্যে: News 18
  • Share this:

#লাহোর:  এবার পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক আচরণের শিকার হলেন একজন ট্রাফিক পুলিশ ।গুলাব সিংহ শাহীন নামক এক অফিসারকে দেরা চাহল গ্রামের বাড়ি থেকে সপরিবারে বার করে দিয়েছেন পাকিস্তানের অপসারণ সম্পত্তি বোর্ডের কর্মকর্তারা ।ইনি পাকিস্তানের প্রথম শিখ সম্প্রদায়ভুক্ত ট্রাফিক পুলিশ অফিসার ।

তিনি অভিযোগ জানিয়েছেন তাঁকে ও তাঁর ধর্মকে অপমান করা হয়েছে । এবছর এপ্রিল মাসে , ওই কর্মকর্তারা তাঁকে হেনস্থা করেন । জোর করে তাঁর পাগড়ি খুলে নেওয়া হয় । স্ত্রী ও তিন সন্তানের সামনেই তাঁর চুল ধরে বলপূর্বক বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় । পাকিস্তানে বসবাসকারী শিখদের অবস্থা এরকমই, জানিয়েছেন তিনি । ওই ঘটনার পর থেকেই মেডিকেল লিভে আছেন তিনি ।

পাকিস্তানের শিখ গুরুদ্বার প্রবন্ধক কমিটির সভাপতি তারা সিংহের বিরুদ্ধেও হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন গুলাব সিংহ । ওই বাড়ি প্রবন্ধক কমিটিরই সম্পত্তি ।

অপসারণ বোর্ডের কর্তারা জানিয়েছেন তাঁরা পুলিশের অনুমতি নিয়েই সেখানে গিয়েছিলেন । তাঁদের বক্তব্য গুরুদ্বারের সম্পত্তিতে বেআইনিভাবে বসবাস করছিলেন গুলাব সিংহ ও তাঁর পরিবার ।

আরও পড়ুন: 'ডাইং টু সারভাইভ': এবার ভারত থেকে ক্যান্সার-বিরোধী ওষুধ আমদানি করতে চায় চিন

Loading...

কিন্তু গুলাব সিংহ জানিয়েছেন ১৯৪৭ সাল থেকেই ওই বাড়িতে থাকতেন  তাঁর পরিবার । সঠিক সময়ে বাড়িভাড়াও মিটিয়ে এসেছেন তাঁরা । কেন নোটিশ পাঠিয়ে বাড়ি খালি করার কথা বলা হয়নি, সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি ।

পাকিস্তানে বেশ কিছু বছর ধরেই বেড়েছে হিংসামূলক অপরাধ । এই ঘটনা সেই বিষয়টিকে আরও একবার সামনে আনল ।

First published: 12:17:13 PM Jul 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर