corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুতিনেরই রাজত্ব!‌ সংবিধান সংশোধনের ভোটে ২০৩৬ পর্যন্ত পুতিনকেই চাইছে রাশিয়া

পুতিনেরই রাজত্ব!‌ সংবিধান সংশোধনের ভোটে ২০৩৬ পর্যন্ত পুতিনকেই চাইছে রাশিয়া

রাশিয়ার জাতীয় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখনও পর্যন্ত ৭৮ শতাংশ ভোট পড়েছে পুতিনের পক্ষে, অর্থাৎ সংবিধান সংশোধনের পক্ষে

  • Share this:

#‌মস্কো:‌ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ক্ষমতাই দীর্ঘস্থায়ী হতে চলেছে। ২০২৪ সালে তাঁর বর্তমান ক্ষমতার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল। সেই কারণেই সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে পুতিনের রাষ্ট্রনায়ক থাকার সময়সীমা আরও দুই মেয়াদ বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়। মানে ২০২৪ সালের পরে আরও ১২ বছর। সেই নিয়ে গণভোটের আয়োজন করা হয়। সূত্রের খবর, ৯৮ শতাংশ ভোটের গণনার পর দেখা গিয়েছে, বেশির ভাগ মানুষই পুতিনের নেতৃত্ব আরও ১২ বছর থাকতে চাইছেন। অর্থাৎ বেশির ভাগ মানুষ সংবিধান সংশোধনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। বর্তমানে পুতিনের বয়স ৬৭ বছর। এই ভোটের ফলে তাঁর ৮৩ বছর বয়স পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেল।

রাশিয়ার জাতীয় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখনও পর্যন্ত ৭৮ শতাংশ ভোট পড়েছে পুতিনের পক্ষে, অর্থাৎ সংবিধান সংশোধনের পক্ষে। আর মাত্র ২১ শতাংশ ভোট পড়েছে বিপক্ষে। কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভোট স্বচ্ছ এবং সঠিক ভাবেই গণনা করা হয়েছে। কিন্তু বিরোধীরা পুতিনের পক্ষে রায় গেলেও আওয়াজ তুলেছেন।

বিরোধী দলের নেতা অ্যালেক্সেই নাভ্যালনি জানিয়েছেন, এই ভোটের ফলাফল অনৈতিক। অনৈতিক ভাবে পুতিনকে সারা জীবনের জন্য ক্ষমতায় রাখার চেষ্টা চলছে। তিনি বলেছে, এখন করোনা সংক্রমণের কারণে বড় কোনও আন্দোলনের পথে না হাঁটলেও আগামী বসন্তে যে স্থানীয় নির্বাচন হবে তাতে যদি তাঁদের দলের প্রার্থীদের অংশ নিতে না দেওয়া হয়, যদি ভোটে কারচুপি করা হয় তাহলে দেশে বড় আন্দোলন শুরু হবে।

এবারে রাশিয়ার এই গণভোট ছিল আরও অন্য একটি দিক থেকে মজাদার। কারণ, এখানে ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেও ভোটারদের বুথমুখী করতে নানা রকম অফার দিয়েছিল সরকার। যেমন শুরু হয়েছিল র‌্যাফল ড্র। সেখানে পুরস্কার হিসাবে ফ্ল্যাট, নগদ অর্থ দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কেউ কেউ তাঁদের অ্যাকাউন্টে পেয়েছিলেন ১০ হাজার রুবেল, মার্কিন মুদ্রায় ১৪১ ডলার।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: July 2, 2020, 4:36 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर