বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

খিদের বিরুদ্ধে লড়াই পেল স্বীকৃতি, বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পকে নোবেল শান্তি পুরস্কার

খিদের বিরুদ্ধে লড়াই পেল স্বীকৃতি, বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পকে নোবেল শান্তি পুরস্কার

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেন থেকে উত্তর কোরিয়া- গোটা বিশ্বের অগণিত মানুষের দুবেলা দুমুঠো খাবারের সমাধান করে রাষ্ট্রসঙ্ঘের এই প্রকল্প ভূষিত নোবেল শান্তি পুরস্কারে

  • Share this:

#অসলো: পাপী পেটই পৃথিবীর সমস্ত যুদ্ধের কারণ ৷ সেই কারণ ধ্বংসের লক্ষেই কাজ করে সম্মানিত বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প (World Food Programme) ৷ যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেন থেকে উত্তর কোরিয়া- গোটা বিশ্বের অগণিত মানুষের দুবেলা দুমুঠো খাবারের সমাধান করে রাষ্ট্রসঙ্ঘের এই প্রকল্প ভূষিত নোবেল শান্তি পুরস্কারে  ৷

গত কয়েকদিন ধরেই একের পর এক বিভাগে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা চলছে শুক্রবার অসলো শহরে নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করেন নরওয়ের নোবেল কমিটির চেয়ারওম্যান বেরিট রিস-অ্যান্ডারসেন। তিনি বলেন, ‘যুদ্ধ ও সংঘাতের অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে খিদেকে ৷ ক্ষুধা নিবৃত্তি ঘটিয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে বিশ্ব খাদ্য প্রকল্প ৷ কোটি কোটি অভুক্ত মানুষের মুখে খাবার যুগিয়েছে প্রকল্প ৷’

ক্ষুধার্তের মুখে খাদ্যতুলে দিতে রাষ্ট্রপুঞ্জের এই সংস্থায় মুক্তহস্তে অর্থদানের আর্জিও এ দিন জানিয়েছেন রিস-অ্যান্ডারসন। চেয়ারওম্যান এদিন বলেন, গোটা বিশ্বে অভুক্ত থেকে খালি পেটে দিন গুজরান করছেন কোটি কোটি মানুষ ৷ সে দিকে আরও বেশি করে নজর ঘোরাতে এবং গোটা বিশ্বের সামনে সমস্যাটি উপস্থাপন করতে এ বছর বিশ্ব খাদ্য প্রকল্পের কৃতিত্বকে সম্মানিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নোবেল কমিটি ৷

হিসেব বলছে, শুধু ২০১৯ সালেই ৮৮টি দেশের ৯.৭ কোটি মানুষকে ১৫০ কোটি রেশন যুগিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের এই প্রকল্প ৷ ১৯৬১ সাল থেকে কাজ করে আসা এই প্রকল্প নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জের আশা এবং লক্ষ্য ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্ব থেকে ক্ষুধাদূরীকরণ ৷

উল্লেখ্য ৷ হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়েছে, ২০২১ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য ট্রাম্পের নাম মনোনীত করা হয়েছে। ইজরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ও বাহরিনের সম্পর্ক স্বাভাবিক করায় মধ্যস্থতার জন্যই বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্টের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে।

Published by: Elina Datta
First published: October 9, 2020, 8:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर