লক্ষ্য বিশ্ব রেকর্ড গড়া, হাতকড়া পরে ৮.৬ কিলোমিটার সাঁতরালেন যুবক!

লক্ষ্য বিশ্ব রেকর্ড গড়া, হাতকড়া পরে ৮.৬ কিলোমিটার সাঁতরালেন যুবক!

Representative image/Reuters

নামের পাশে বিশ্ব রেকর্ড থাকলে তার মাত্রাই আলাদা হয়। এবার এমনই নেশায় হাতকড়া পরে প্রায় ৯ কিমি সাঁতরালেন যুবক।

  • Share this:

#ভার্জিনিয়া: নিজের নাম বিভিন্ন রেকর্ড বুকে তোলার জন্য কত কী না করে মানুষ! একাধিক উদ্ভট কাজ করে সকলের নজর কাড়তে চায় তারা। নামের পাশে বিশ্ব রেকর্ড থাকলে তার মাত্রাই আলাদা হয়। এবার এমনই নেশায় হাতকড়া পরে প্রায় ৯ কিমি সাঁতরালেন যুবক।

The Free Lance Star-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তোলার জন্য ভার্জিনিয়ার বেন কাটজম্যান নামের ওই যুবক এই কাজ করেন। তিনি হাতে হ্যান্ডকাফ বেঁধে সোজা ৮.৬ কিলোমিটার সাঁতরান। পরে সাঁতারের সমস্ত ভিডিও ও ছবি গিনেস বুকের ওয়েবসাইটে আপলোড করেন।

জানা গিয়েছে, গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কিছু জানায়নি। বেন জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে তারা এখনও পর্যন্ত কোনও রকম কথাও বলেনি। তবে, রেকর্ডের ব্যাপারে আশাবাদী তিনি।

বর্তমানে হাতে হ্যান্ডকাফ পরে সাঁতার কাটার রেকর্ড রয়েছে এলহাম সাদত আসগারি (Elham Sadat Asghari)-র ঝুলিতে। তিনি ২০১৯ সালে এভাবে ৫.৪৯ কিলোমিটার সাঁতরে গিনেস বুকে নাম তুলেছিলেন।

যেহেতু এই বিভাগে শেষ করা রেকর্ডের কিলোমিটার ৫.৮৯ ,তাই ৮.৬ কিলোমিটার সাঁতরে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়ার বিষয়ে অনেকটাই আশাবাদী তিনি। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, এই রেকর্ড করার সময় তিনি যতটা সময় জলে ছিলেন, সেটাই ছিল তাঁর সব চেয়ে বেশি সময় জলে কাটানো।

কিন্তু এই শখ বা সাঁতার কাটার শুরুটা কোথা থেকে হল? উত্তরে বেন জানান, তিন বছর বয়স থেকে সাঁতার কাটা শুরু করেন তিনি। হ্যান্ডকাফ পরে সাঁতার কাটাও অনেক দিন আগে শুরু করেছেন। নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে সাঁতারু জানান, প্রথমে যখন তিনি হ্যান্ডকাফ পরে সাঁতার কাটেন, তখন হাতে চোট পান খুব খারাপ ভাবে। পরে অভ্যাস করে নেন। রেকর্ড তৈরি করার জন্য খুবই পরিশ্রম করেছেন তিনি।

তবে, তাঁর এই রেকর্ডকে গিনেস বুক স্বীকৃতি দেবে কি না, সেই নিয়ে তিনি চিন্তায়। কারণ গিনেস বুক যে অবজার্ভার রাখে, তিনি মোটে চার ঘণ্টা কাজ করেন একটি শিফটে। এবার চার ঘণ্টার পরও বেন সাঁতার কেটেছেন, যেটা দেখার জন্য কেউ ছিল না। সেটা নিয়েই চিন্তায় রয়েছেন তিনি! এর আগে বেন কিং জর্জ YMCA পুলে হ্যান্ডকাফ পরে রেকর্ড করেছেন।

Published by:Piya Banerjee
First published: