corona virus btn
corona virus btn
Loading

ক্যান্সারের ভয় দেখিয়ে চিকিৎসার নামে বিদেশী মহিলাদের স্তন, যৌনাঙ্গে হাত ডাক্তারবাবুর!

ক্যান্সারের ভয় দেখিয়ে চিকিৎসার নামে বিদেশী মহিলাদের স্তন, যৌনাঙ্গে হাত ডাক্তারবাবুর!
Representative Image

লন্ডনে ভারতীয় চিকিৎসকের বিরুদ্ধে গুরতর অভিযোগ

  • Share this:

#লন্ডন: হতে পারে দুরারোগ্য ব্যাধি৷ তাই প্রতিনিয়ত পরীক্ষা করতে হবে স্তন ও যোনি৷ এমনই পরামর্শ দিতেন চিকিৎসক৷ উদাহরণ হিসেবে ব্যবহার করা হত অ্যাঞ্জেলিনা জোলির নাম৷ ক্যান্সার থেকে বাঁচতে তিনি নিজের স্তন বাদ দিয়েছিলেন৷ সে মতো অন্য মহিলাদের ক্যান্সারের কোনও আশঙ্কা রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করতেই তাদের স্তন, যোনিতে হাত দিতেন চিকিৎসক৷ ঘটনা লন্ডনের৷

লন্ডনের মতো উন্নত দেশেও চিকিৎসার নামে মহিলাদের গোপনাঙ্গে হাত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় বংশদ্ভুত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে৷ চিকিৎসকের নাম মণীষ শাহ৷ তার বিরুদ্ধে প্রায় ২৫জন মহিলা অভিযোগ দায়ের করেছেন৷ সেই নিয়েই ডঃ মণীশের বিরুদ্ধে মামলা শুরু হয়েছে৷ নিগৃহীতা মহিলাদের পক্ষের আইনজীবী জানান যে একপ্রকার জোর করে মহিলা রোগীদের স্তন ও যোনি পরীক্ষা করতেন ডঃ মণীশ৷ তিনি ক্যান্সারের ভয় দেখাতেন৷ নির্দিষ্ট বয়সের পর মহিলাদের স্তন ক্যান্সারের আশঙ্কা বেড়ে যায়৷ তবে শুধু ক্যান্সারই নয়৷ আরও কিছু স্ত্রীরোগ রয়েছে যা ক্যান্সারের থেকেও ভয়ানক৷ যার জন্য নিয়মিত স্তন ও যোনি পরীক্ষা করা উচিৎ বলেই পরামর্শ ছিল চিকিৎসকের৷ তিনি নিজেই তাদের স্তন ও যোনি ছুঁয়ে দেখতেন৷ অনেক সময় আবার পায়ুদ্বারও পরীক্ষা করা হত৷ এভাবে নিজের বিকৃতকামনা চরিতার্থ করতেন ডঃ মণীষ৷ এমনই অভিযোগ এনেছেন মহিলারা৷

আরও পড়ুনমহিলাদের উত্যক্ত করছিল যুবক, ২২বার জুতো পেটা মহিলা পুলিশের! ভাইরাল হল ভিডিও...

২০০৯ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত চলেছে এই জঘন্য কাজ৷ পুর্ব লন্ডনের মাওনেই মেডিক্যাল সেন্টারে ৫০ বছর বয়সী এই চিকিৎসকের লালসার শিকার হয়েছেন বিভিন্ন বয়সী মহিলারা৷ এমনকি ১১ বছরের কিশোরীও বাদ যায়নি এই চিকিৎসকের অত্যাচার থেকে৷ নিজের বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এই চিকিৎসক৷ শুধু যৌন নির্যাতন নয়, নিজের রোগীদের আলিঙ্গন করা বা চুমুও খেতেন তিনি৷ এই ধরণের অভব্য ব্যবহারের জন্য হাসপাতাল ২০১৩-এ হাসপাতাল থেকে থেকে নির্বাসিত হয় ডঃ মণীষ শাহ৷

First published: December 11, 2019, 12:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर