UK Red List : করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত : ব্রিটেনের 'রেড লিস্ট'-এ ঢুকে পড়ল ভারত!

UK Red List : করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত : ব্রিটেনের 'রেড লিস্ট'-এ ঢুকে পড়ল  ভারত!

উড়ানে নিষেধাজ্ঞা photo-file

আগামী সপ্তাহেই দিল্লি সফরে আসার কথা ছিল ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের। আপাতত বাতিল সেই সফরও।

  • Share this:

    #লণ্ডন : দিল্লিতে লকডাউন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন তাঁর ভারত সফরের কর্মসূচি বাতিল করার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন। এরপরেই ভারতকে রেড তালিকাভুক্ত করারও সিদ্ধান্ত নিল ব্রিটেন। ভারতেই প্রথম করোনার মোট ১০৩ টি প্রজাতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে ৷ এই পরিস্থিতিতে ব্রিটেনের তরফে ভারতকে সে দেশ থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার 'রেড লিস্ট'-এ রাখা হবে বলেই জানালেন ব্রিটেনের স্বাস্থ্যসচিব ম্যাট হ্যানকক্ ৷ অর্থাৎ ওই দেশ থেকে ভারতে ভ্রমণ নিষিদ্ধ থাকবে।

    সোমবারই ব্রিটেনের তরফে ভারতে উপর এই ভ্রমণ প্রতিবন্ধকতা আরোপ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ ম্যাট হ্যানকক্ জানিয়েছেন, আগামী শুক্রবার থেকে এই নিয়ম জারি হবে৷ ভারত থেকে ওদেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে একমাত্র ব্রিটিশ এবং আইরিশ নাগরিক ছাড়া বাকি সবাইকে 'ব্যান' করা হয়েছে ৷ এর মধ্যে যাঁরাই ব্রিটেনে প্রবেশ করবেন তাঁদের সবাইকেই ব্রিটেন সরকারের দ্বারা নির্ধারিত কোয়ারেন্টাইন হোটেলে ১০ দিনের জন্য থাকতে হবে বিপুল পরিমাণ টাকার বিনিময়ে ৷ এই তালিকা পাকিস্তান ও বাংলাদেশ-সহ সে দেশে বসবাসকারী বিদেশিদের জন্যও প্রযোজ্য হবে৷

    আগামী সপ্তাহেই দিল্লি সফরে আসার কথা ছিল ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের। আপাতত বাতিল সেই সফরও। এর আগেও প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আসার কথা ছিল জনসনের। করোনা দ্বিতীয় ঢেউ তখন আছড়ে পরে ব্রিটেনে। বাতিল করা হয় প্রধানমন্ত্রীর সফর। এবার ফের একবার বাধা পেল বরিসের ভারত সফর। দুদেশের রাজনৈতিক সম্পর্কে এই সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল বলেই মনে করছেন কূটনীতিকরা। অবশ্য ব্রিটেনের তরফে জানানো হয়েছে, এপ্রিলের শেষের দিকে মোদি এবং জনসন দু'দেশের মধ্যে সুসম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে আলোচনায় বসবেন ৷ জানা গিয়েছে মুখোমুখি বৈঠকের ক্ষেত্রে বাধা থাকলেও দ্বি-পাক্ষিক সু-সম্পৰ্ক বজায় রাখতে ও পারস্পরিক বোঝাপড়া নিয়ে আলোচনা করতে খুব শিগগিরই ভার্চুয়াল বৈঠকে পাশে থাকবে দু'দেশ।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: