৫০০ মশা মারতে পারলেই নগদ পুরস্কার, ডেঙ্গি মোকাবিলায় নয়া পন্থা !

৫০০ মশা মারতে পারলেই নগদ পুরস্কার, ডেঙ্গি মোকাবিলায় নয়া পন্থা !

৫০০ মশার মৃতদেহ জমা দিলেই সঙ্গে সঙ্গে পকেটে আসবে কড়কড়ে ১০০ টাকা ৷ গুজব নয়, ডেঙ্গি মোকাবিলায় এমনই পন্থার ঘোষণা ৷

  • Share this:

#ঢাকা: ৫০০ মশা মারতে পারলেই কেল্লা ফতে ৷ হাতে হাতে নগদ পুরস্কার ৷ তবে নগদ পেতে হাতেনাতে দিতে হবে প্রমাণ ৷ ৫০০ মশার মৃতদেহ জমা দিলেই সঙ্গে সঙ্গে পকেটে আসবে কড়কড়ে ১০০ টাকা ৷ গুজব নয়, ডেঙ্গি মোকাবিলায় এমনই পন্থার ঘোষণা ৷

মশা মেরে পুরস্কারের এমনই আজব ঘোষণা হয়েছে বাংলাদেশে ৷ ডেঙ্গির প্রকোপে নাজেহাল ওপার বাংলা ৷ রাজধানী ঢাকা ছাড়াও গোটা দেশেই বেড়ে চলেছে ডেঙ্গির প্রকোপ ৷ সামলাতে নাজেহাল প্রশাসন ৷

মশা মারার সমস্ত উদ্যোগ নেওয়ার পরেও তেমন প্রভাব দেখা যাচ্ছে না ৷ ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে ৷ চাপ বাড়ছে প্রশাসনের উপরেও ৷ এমতাবস্থায় মশা মেরে নগদ পুরস্কারের ঘোষণা করলেন বাংলাদেশের রংপুরের প্রাক্তন পৌর মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টুর ছেলে রিয়াজ হিমন ৷ মজা করেই তিনি ফেসবুকে লেখেন, ৫০০ মশা মারুন ও নগদ ১০০ টাকা পুরস্কার জিতুন ৷ এই প্রথম নয় এমন ঘোষণা আগেও হয়েছিল ৷ তবে সেবার প্রশাসনের তরফে রংপুরের মেয়রই করেছিলেন এই অদ্ভুত প্রতিযোগিতার ঘোষণা ৷

১৯৯৩ সালেও ডেঙ্গির প্রকোপ নিয়ে এমনই কঠিন পরিস্থিতির মুখে পড়েছিল বাংলাদেশ ৷ সেবারও মশা নির্মূলের সমস্ত প্রচেষ্টা বিফলে যেতে আর উপায় না দেখে রংপুরের তখনকার পৌর মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু ঘোষণা করেছিলেন আজব প্রতিযোগিতার ৷ বলা হয়, আপনারা ৫০০ মশা মেরে নিয়ে আসতে পারলে ১০০ টাকা করে পুরস্কার পাবেন ৷

রিয়াজ হিমনের দাবি, সেবার এমন প্রচেষ্টা কাজে এসেছিল ৷ সবাই গামলায়, বালতিতে যে যেটাতে পারে তেল মেখে ড্রেন, খাল, ডোবা যেখানে মশা বেশি সেখানে এক ডুব দিত একবারে হাজার হাজার মশা গামলায় ধরা পড়ত। এতে ১৫ দিনে সত্যি সত্যি মশার প্রকোপ উধাও হয়ে গিয়েছিল! মশা মেরে জমা দিয়ে পাড়ার ছেলেরা ব্যাট-বলের মতো জিনিসও পুরস্কার পেয়েছেন ৷ তাই এবারের পরিস্থিতির মোকাবিলাতেও রিয়াজের টোটকা সেই মশা মারার নগদ পুরস্কার ৷

First published: August 19, 2019, 5:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर