• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • যুদ্ধক্ষেত্রে যৌন নিপীড়নকে হাতিয়ার করার বিরুদ্ধে সরব হয়ে নোবেল শান্তি পেলেন মুকওয়েজে ও নাদিয়া

যুদ্ধক্ষেত্রে যৌন নিপীড়নকে হাতিয়ার করার বিরুদ্ধে সরব হয়ে নোবেল শান্তি পেলেন মুকওয়েজে ও নাদিয়া

  • Share this:

    #স্টকহোম:  ঘোষিত হল নোবেল শান্তি পুরস্কার ।যৌন নিপীড়নকে যুদ্ধের হাতিয়ার করার প্রচেষ্টা বন্ধে নিরলস প্রচেষ্টার জন্য যুগ্মভাবে পুরস্কার পেলেন ডেনিস মুকওয়েজে ও নাদিয়া মুরাদ । পেশায় চিকিৎসক মুকওয়েজে কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের বাসিন্দা । জীবনের বেশিরভাগ সময়ই যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন যারা তাঁদের চিকিৎসা করে সুস্থ করে তুলেছেন । যুদ্ধ নিপীড়িত কঙ্গোর বিভিন্ন প্রান্তে তিনি ও তাঁর চিকিৎসক দলকে নিয়ে নিরন্তরভাবে কাজ চালিয়ে গিয়েছেন মুকওয়েজে ।

    অন্যদিকে নাদিয়া হলেন ৩,০০০ ইয়াজিদী তরুণীদের একজন যাদের অপহরণ করে দিনের পর দিন নির্মম ভাবে যৌন নিপীড়ন চালিয়েছে ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিরা । ইসলামিক স্টেট ধারাবাহিক ভাবেই ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনকে হাতিয়ার করে থাকে ভীতি সঞ্চারের জন্য । ইয়াজিদী সহ অন্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে ক্রমাগত যৌন অত্যাচার চালিয়েছে ইসলামিক স্টেট বাহিনী ।

    গণধর্ষণ ও ধারাবাহিক যৌন অত্যাচারের বিরুদ্ধেই দুজনেই সরব হয়েছেন । এই সমস্যা রুখতে কোনওরকম উদ্যোগ নেয়নি কঙ্গো সরকার, এই অভিযোগও তুলেছিলেন মুকওয়েজে । যুদ্ধ পীড়িত এলাকায় মহিলাদের উপর শারীরিক অত্যাচার বন্ধে তাঁর অনবদ্য অবদানের জন্য এবছর নোবেল শান্তি পুরস্কার পেলেন মুকওয়েজে।

    অন্যদিকে মালাল ইউসুফজাই-এর পর নাদিয়া হলেন দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম নোবেল বিজেতা । ২০১৪ সালেই তাঁকে অপহরণ করে আইএস বাহিনী । জঙ্গিদের হাতে প্রাণ হারায় তাঁর পরিবার। নিজের জীবনকে বারবার তুচ্ছ করে যুদ্ধের নামে যৌন শোষণ বন্ধ করার দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন নাদিয়া, তাই এবছরে নোবেল বিজেতা তিনিও ।

    First published: