হিউম্যান ট্রায়ালেও সাফল্য! চিনা গবেষকরা দাবি করছেন মানবদেহে কাজ করেছে এই ভ্যাকসিন

হিউম্যান ট্রায়ালেও সাফল্য! চিনা গবেষকরা দাবি করছেন মানবদেহে কাজ করেছে এই ভ্যাকসিন

এর পরের ধাপে ৫০৮ জনের শরীরে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা করা হবে

এর পরের ধাপে ৫০৮ জনের শরীরে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা করা হবে

  • Share this:

    #পিকিং: চিনা গবেষকরা আগেই দাবি করেছিলেন, তাঁদের হাতে একাধিক করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের ফর্মুলা রয়েছে। সেগুলি আশাজনক ফলও দেখিয়েছে। তবে সবকটিই আছে হিউম্যান ট্রায়ালের পর্যায়ে। এবার সেই হিউম্যান ট্রায়ালেও ভ্যাকসিনের সাফল্য দাবি করল চিন। তাঁদের দাবি, ভাইরাল লোড দ্রুত কমিয়ে ফেলার ক্ষেত্রে চিনের এই নতুন প্রতিষেধক শক্তিশালী ভূমিকা নিতে পারে। চিনা সংস্থা একটি আন্তর্জাতিক পত্রিকায় এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষার ফল নিয়ে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছে। আর সেখানেই এর চরম সাফল্যের দাবি করা হয়েছে।

    সেখানে বলা হয়ছে, ১০৮ জন স্বেচ্ছাসেবককে কয়েকটি দলে ভাগ করে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা করা হয়েছিল। ভ্যাকসিন দেওয়ার একমাস পরেও এই স্বেচ্ছাসেবকদের শরীরে তেমন কোনও বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি। ফলে বলা চলে, এঁদের শরীরে কাজ করতে শুরু করেছে এই ভ্যাকসিনটি।

    ওদিকে অক্সফোর্ডের গবেষকরাও ভ্যাকসিন তৈরিতে অনেকদূর এগিয়ে গিয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে। তাঁরাও মানব শরীরে ভ্যাকসিন প্রয়োগে সাফল্যের আশা করছেন। চিনা গবেষকরা বলেছেন, এর পরের ধাপে ৫০৮ জনের শরীরে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা করা হবে। তারপর নেওয়া হবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: