CoronaVirusঃ পোষ্যের শরীরে মারণ ভাইরাসের থাবা, রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতেই চরম আতঙ্কে পশুপ্রেমীরা

সংগৃহীত ছবি

বিড়ালটির মালিকও দিন কয়েক ধরে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

  • Share this:

    #বেলজিয়ামঃ আতঙ্ক বাড়িয়ে এবার পোষ্যের শরীরে করোনা সংক্রমণ।

    হংকং-য়ের দুটি কুকুরের পর এবার বিড়ালের শরীরে থাবা বসাল করোনা। আর এই রিপোর্ট আসার পর চরম আতঙ্কে ভুগছেন পোষ্য প্রেমীরা। ব্রাসেলস টাইমসের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী  বলা হয়, বিড়ালের করোনা সংক্রমণের এই ঘটনাট, বেলজিয়ামের লিয়েজ প্রদেশে বিড়ালটি কয়েকদিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়ে। তার ডায়েরিয়া, শ্বাসকষ্ট-সহ করোনা ভাইরাসের বেশ কিছু লক্ষণই দেখা যায়। এরপর তড়িঘড়ি তাকে পশু হাসপাতালে ন়িয়ে যাওয়া। সেখানেই চিকিৎসকেরা তাকে পরীক্ষা করে নিশ্চিত হন, সে করোনায ভাইরাসে আক্রান্ত।

    ওই সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্টের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, বিড়ালটি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নিশ্চিত হওয়ার পড়ই তারই বিষয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করেন চিকিৎসকরা। সেখানেই তাঁরা জানতে পারেন,  বিড়ালটির মালিকও দিন কয়েক ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁর চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকদের অনুমান, মালিকের থেকেই ভাইরাস পোষ্যয় শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। আক্রান্ত বিড়লটিকে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা চলছে।  এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর বিশেষজ্ঞদের দাবি,  বেলজিয়ামেই প্রথম কোনও বিড়ালের শরীরে করোনার জীবাণু মিলল।

    যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দাবি, এখন ও পর্যন্ত মানুষের শরীর থেকে পোষ্যের শরীরে করোনার জীবাণু প্রবেশ করেছে তার কোনও প্রমাণ মেলেনি।

    প্রসঙ্গত, সম্প্রতি হংকংয়েও পোষ্য দুটি কুকুরের শরীরেও মারণ করোনা ভাইরাসের  উপস্থিতি মেলে। তার মধ্যে ১৭ বছরের একটি পমেরিয়াম। যদিও কোয়ারেন্টাইন  থেকে বা়ড়িতে ফিরে মারা যায় সে। সেক্ষেত্রেও পশু চিকিৎসকরা বলেন, মালিকের থেকেই সংরমণ ছড়িয়েছিল তাদের শরীরে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বর্তমানে বেলজিয়ামে করোনায় আক্রান্ত ৭ হাজারের কিছু বেশি।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: