• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • AMANDA GORMAN YOUNGEST INAUGURAL POET SAYS SHE WANTS TO BE AMERICAN PRESIDENT ONE DAY PBD

সবে শপথ নিয়েছেন বাইডেন, এর মাঝেই উঠে এল ভবিষ্যতের প্রেসিডেন্টের কথা!

অ্যামান্ডা জানিয়েছেন যে ক্লাস এইটে পড়ার সময় থেকেই তাঁর মাথায় দেশের প্রেসিডেন্ট হওয়ার স্বপ্নটা চাগাড় দেয়।

অ্যামান্ডা জানিয়েছেন যে ক্লাস এইটে পড়ার সময় থেকেই তাঁর মাথায় দেশের প্রেসিডেন্ট হওয়ার স্বপ্নটা চাগাড় দেয়।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: এলিন ডিজেনার (Ellen DeGeneres) বিশ্বের প্রথম সারির সেলিব্রিটি তো বটেই! তাঁর টক শোয়ে হাজিরা দিয়ে নিজের খ্যাতির পাল্লা ভারি করতে প্রায় যেন হুড়োহুড়ি পড়ে যায় আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রের ব্যক্তিত্বদের মধ্যে। একটু স্পষ্ট করে বললে মার্কিন মুলুকের প্রায় সব বিখ্যাত ব্যক্তিই কোনও না কোনও সময়ে উপস্থিত হয়েছেন দ্য এলিন ডিজেনার শোয়ে (The Ellen DeGeneres Show)। মঙ্গলবার সেই শোয়েই একটি ভার্চুয়াল চ্যাটে অংশ নিয়েছিলেন অ্যামান্ডা গরম্যান। আর সেখানেই তিনি জানিয়েছেন ভবিষ্যতে মার্কিন মুলুকের প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হওয়া নিয়ে নিজের চিন্তাভাবনার কথা।

কে এই অ্যামান্ডা গরম্যান (Amanda Gorman)?

অ্যামান্ডা এর মধ্যেই মার্কিন মুলুকের ইতিহাসে একটি মাইলফলক তৈরি করে ফেলেছেন। খ্যাতির দিক থেকে তিনি রয়েছেন বিশ্বের প্রতিষ্ঠিত কবিদের তালিকায়। কিন্তু এছাড়াও সম্প্রতি তাঁর মুকুটে যোগ হয়েছে এক অভিনব পালক। তিনিই আপাতত পরিসংখ্যানের দিক থেকে বিশ্বের কনিষ্ঠতম কবি, যিনি প্রেসিডেন্টের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে কাব্যপাঠ করেছেন। এর আগে এই তালিকায় ছিল এলিজাবেথ আলেকজান্ডার (Elizabeth Alexander), মায়া অ্যাঞ্জেলু (Maya Angelou), রবার্ট ফ্রস্টের (Robert Frost) মতো প্রথিতযশা কবিদের নাম। আর এখন তাঁদের সঙ্গে এক সারিতে নাম নেওয়া হচ্ছে অ্যামান্ডারও।

আরও পড়ুন ৬৭ বছর স্নান করেননি! দেখলে গা ঘিন ঘিন করবে বিশ্বের সব থেকে নোংরা মানুষকে

এলিন ডিজেনারকে এই প্রসঙ্গে অ্যামান্ডা জানিয়েছেন যে তাঁর বহু দিনের স্বপ্ন আংশিক সত্য হয়েছে। খুব ছোটবেলা থেকেই তিনি প্রেসিডেন্টের শপথ গ্রহণের মঞ্চে নিজেকে দেখতে চাইতেন। সেই স্বপ্ন পূর্ণ হয়েছে ঠিকই! তবে আসল ব্যাপারটা যে এখনও বাকি- প্রেসিডেন্ট হিসেবে একদিন শপথ নেবেন, এটাই অ্যামান্ডার দীর্ঘলালিত মনোগত বাসনা!

কথায় কথায় অ্যামান্ডা জানিয়েছেন যে ক্লাস এইটে পড়ার সময় থেকেই তাঁর মাথায় দেশের প্রেসিডেন্ট হওয়ার স্বপ্নটা চাগাড় দেয়। তাঁর এক শিক্ষক মজা করে বলেছিলেন যে অ্যামান্ডা যেমন তুখোড়, তাতে তাঁর দেশের প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হওয়াটাই মানায়! কবি জানিয়েছেন যে উত্তরে তিনি বলেছিলেন শিক্ষককে- এটা একদিন বাস্তবে পরিণত হবে!

অ্যামান্ডার মতো তাঁর পরিবারও যে এই বিষয়টিকে খুব গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে থাকেন, উঠে এসেছে সেই প্রসঙ্গও। তাঁর বোন না কি এই কারণেই নিজের ছবি তুলতে দিতে চাইতেন না এক সময়ে! বলতেন, অ্যামান্ডা একদিন দেশের প্রেসিডেন্ট হবেন, অতএব সেই পরিবারের সদস্য হিসেবে তাঁর কোনও হালকা মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দী থাকা ঠিক হবে না।

এলিন ডিজেনার জানিয়েছেন যে তাঁর শোয়ের পক্ষ থেকে অ্যামান্ডাকে একটা টি-শার্ট দেওয়া হবে। যার বুকে লেখা থাকবে- ২০৩৬ সালের প্রেসিডেন্ট! দেখা যাক, তাঁর এই কথা সত্যি প্রমাণ হয় কি না!

Published by:Pooja Basu
First published: