২৬ ঘন্টায় এভারেস্ট জয় ! বিশ্বরেকর্ড হংকংয়ের নারীর

বিশ্বের সর্বোচ্চ শিখরে নতুন রেকর্ড হংকংয়ের নারীর

২৬ ঘণ্টার কিছু কম সময়ে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের শীর্ষে উঠে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন হংকংয়ের এক নারী। ৪৪ বছর বয়সী এই নারী পেশায় শিক্ষিকা

  • Share this:

    #কাঠমান্ডু: চেষ্টা থাকলে সব সম্ভব। ইচ্ছেশক্তির কাছে হেরে যেতে বাধ্য বাকি সবকিছু। শুধু লক্ষ্যটা স্থির থাকা চাই। তাহলেই কেল্লাফতে! এভাবেই অসম্ভবকে সম্ভব করা হয়েছে যুগে যুগে। ২৬ ঘণ্টার কিছু কম সময়ে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের শীর্ষে উঠে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন হংকংয়ের এক নারী। ৪৪ বছর বয়সী এই নারী পেশায় শিক্ষিকা। নেপালভিত্তিক হিমালয়ান টাইমস সহ বিশ্বের সংবাদ মাধ্যমগুলো এ খবর প্রকাশ করেছে।

    এভারেস্ট বেসক্যাম্পের সমন্ব কারি অফিসার জ্ঞানেন্দ্র শেষ্ঠ জানান, সাং হিন হাং নামে ওই নারী শনিবার দুপুর ১টা ২০ মিনিটে শুরু করে রবিবার বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে সামিট সম্পন্ন করেন। সামিট করতে তাঁর সময় লেগেছে ২৫ ঘণ্টা ৫০ মিনিট। এই সামিটের মাধ্যমে তিনি একজন নারী হিসেবে দ্রুততম সময়ে এভারেস্ট জয়ের রেকর্ড গড়েন। সাং হিন হাং এর আগে এই রেকর্ডটি ছিল নেপালি নারী পর্বতারোহী পুঞ্জ ঝাংমু লামার। ২০১৮ সালে তিনি সময় নিয়েছিলেন ৩৯ ঘণ্টা, ৬ মিনিট। জানান জ্ঞানেন্দ্র শেষ্ঠা।

    পূর্বা তেনিজিং শেরপা ছিলেন হাংয়ের গাইড। তিনি ছিলেন টিম লিডার। দলে আরো ছিলেন, পেম্বা দর্জি শেরপা (সর্দার), পূর্বা থিলে শেরপা (প্রধান সামিট গাইড), মিংবা নুরু শেরপা, পেম্বা তামাং ও নিমা গিলজেন শেরপা। ২০১৭ সালে হংকংয়ের প্রথম নারী হিসেবে সাং হিন হাং এভারেস্ট জয় করেন। তবে এখনই তিনি গিনেস বুকে নাম লেখাতে পারছেন না।

    এর জন্য প্রমাণ নিয়ে আবেদন করতে হবে। তারপর মিলবে চূড়ান্ত স্বীকৃতি। হাং অবশ্য আশাবাদী যথাযথ প্রমাণ দেখিয়ে তিনি সার্টিফিকেট আদায় করে নেবেন। ছোটবেলা থেকেই পাহাড়ে চড়ার নেশা। জীবনে দায়িত্ব এসেছে, ব্যস্ততা বেড়েছে। কিন্তু পাহাড়ে ওঠার নেশা ছাড়তে পারেননি। আজ সেই নেশার প্রতি সৎ থাকার মুল্য পেলেন। জীবনের সেরা স্মৃতি হিসেবে এই এভারেস্ট জয় থেকে যাবে জানিয়েছেন হাং।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: