SCO summit| ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যার পর প্রথমবার মুখোমুখি হলেন মোদি-জিনপিং

এই বৈঠকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও উপস্থিত রয়েছেন।

এই বৈঠকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও উপস্থিত রয়েছেন।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: পূর্ব লাদাখের গালভান উপত্যকায় সংঘর্ষ এবং ভারত-চিন সেনার মধ্যে প্যাংগং লেকে উত্তেজনার পর মঙ্গলবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং চিনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং প্রথমবার মুখোমুখি হলেন৷ । SCO সম্মেলনের সভাপতিত্ব করেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। এই বৈঠকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও উপস্থিত রয়েছেন। সেখানে প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই সম্মেলনের গুরুত্বের কথা তুলে ধরেন৷ করোনা কথা বলতে গিয়ে তিনি উল্লেখ করেন যে ভারত ভ্যাকসিন উৎপাদন ও বিতরণের চেষ্টা করছে৷ একই সঙ্গে এই মঞ্চ থেকে পাকিস্তানকেও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন মোদি৷

    'SCO অঞ্চলের সঙ্গে ভারতের ঘনিষ্ঠভাবে সাংস্কৃতিক এবং ঐতিহাসিক যোগাযোগ রয়েছে। আমাদের পূর্বপুরুষরা তাদের অক্লান্ত এবং অবিরাম পরিশ্রমের মাধ্যমে ঐতিহ্যকে বাঁচিয়ে রেখেছেন'। বলেন মোদি৷ এর পাশাপাশি তিনি উল্লেখ করেন যে, 'রাষ্ট্রসংঘ ৭৫ বছর পূর্ণ করেছে। তবে অনেক সাফল্য সত্ত্বেও, রাষ্ট্রসংঘের মূল লক্ষ্য এখনও অসম্পূর্ণ। করোনা অতিমারীর ফলে অর্থনৈতিক ও সামাজিক দুর্ভোগের সঙ্গে লড়াই করছে গোটা বিশ্ব৷ রাষ্ট্রসংঘের ব্যবস্থায় সম্পূর্ণ পরিবর্তন আনবে বলে আশা করা হচ্ছে'।

    করোনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন যে, 'করোনা অতিমারীর জন্য এটা অত্যন্ত কঠিন সময়ে, ভারতের ফার্মা শিল্প দেড় শতাধিক দেশে প্রয়োজনীয় ওষুধ পাঠানোর চেষ্টা করছে৷ বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী দেশ হিসাবে ভারত ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তা বিতরণ করবে৷ এর মাধ্যমে বিশ্ববাসীকে এই সংকট মোকাবেলায় সহায়তা করবে দেশ'৷

    অন্যদিকে SCO সামিটে প্রধানমন্ত্রী মোদী চাঁচাছোলা ভাষায় পাকিস্তানের নিন্দে করে বলেন যে, 'এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক যে SCO সামিট এবং সাংহাই স্পিরিট লঙ্ঘনকারী SCO এজেন্ডায় অযথা দ্বিপক্ষীয় বিষয়গুলি আনার জন্য বারবার চেষ্টা করা হচ্ছে। এমন পদক্ষেপ SCO-র মঞ্চে ঐকমত্য এবং সহযোগিতার চেতনার পরিপন্থী', বললেন মোদি৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: