মাটির টানে ঘরে ফেরার গল্প বলছে শিবমন্দির

শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি চলছে শিবমন্দিরে ৷ নিজস্ব চিত্র ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: চাকরিসূত্রে ছেলে বিদেশে। মেয়েও বিবাহিত। সাত সমুদ্রপাড়ে তার শ্বশুরঘর। স্কাইপে কথা হয়....দেখাও হয়....নাতি-নাতনিদের সঙ্গে....কিন্তু ছোঁয়া যায় না। হাত বাড়ালেই...কেঁপে যায় ছবি। আচ্ছা...ওরা কি ঘরে ফিরবে না? গুমড়ে মরে মায়ের মন। মাটির সেই টান এবার দক্ষিণ কলকাতার শিবমন্দিরে। আমার শিকড় আমার অভিমান...সহজ সুরে আগমনীর গান...যা পেয়েছি সেটুকুই তো সেরা...মাটির টানে মাটির কাছে ফেরা...৷ সময় বদলাচ্ছে, ঘড়ির কাঁটা দৌড়চ্ছে সময়ের আগে, কম সময়ে আরও নাম, আরও টাকা, আরও..আরও চাই ৷ পিছনে পড়ে থাকছে শিকড়...শিকড়ের মায়া কাটিয়ে আজ ছিন্নমূল সমাজ...যে সমাজে মাটির টানে ধুলোর পাহাড় জমছে। তবু মায়ের মন তো...সে মন জানে না আধুনিকতার ভাষা...সুখ ছেড়ে অলীক সুখের পিছনে দৌড়নোর মানেও বোঝে না...সে শুধু সন্তানকে কাছে চায়...ঝাঁ চকচকে জীবনের সন্ধানে বিদেশে থাকা ছেলে, মেয়ের ঘরে ফেরার অপেক্ষায় থাকে দু চোখ...মাটির সেই টান এবার শিবমন্দিরে। ছড়িয়ে, ছিটিয়ে থাকা সম্পর্কের বাঁধন আজ আলগা...কোথাও প্রায় বিচ্ছিন্ন...নিঃসঙ্গতা আজ বাস্তব...কিন্তু মূলেরও তো মূল থাকে...সৃষ্টিরও থাকে...গর্ভগৃহ থাকে। সেই সৃষ্টির আধারের বাঁধন কিন্তু অটুট-ই। আর সেটাই মাটির টান। মণ্ডপ সাজছে নারকেল মালা, ভাঙা ইট, টালি, ইউক্যালিপটাসের গাছের টুকরোয়। মেঠো মণ্ডপ ঘিরে মেঠো সুর...সৌজন্যে শ্রীজাত, জয় সরকার...থিমের ভারে নয়...মাটির টানে অলীক সুখের উৎস খুঁজছে শিবমন্দির ৷

    First published: