পুজোর দায়িত্বে ‘ফেরিওয়ালা গদাই’, কিন্তু সেই গদাইয়ের কোনও অস্তিত্ব নেই

পুজোর দায়িত্বে ‘ফেরিওয়ালা গদাই’, কিন্তু সেই গদাইয়ের কোনও অস্তিত্ব নেই

৭৩ বছরের পুজো। হোর্ডিংয়ে গদাইকেই প্রকাশ্যে এনেছেন উদ্যোক্তারা। কল্পনা আর বাস্তবের দ্বন্দ্ব কাটিয়ে গদাইয়ের গল্প শুনতে যেতে হবে রূপচাঁদ মুখার্জি লেনের পুজোয়।

  • Share this:

#গদাই: পুজোর থিমে বাস্তব জীবন থেকে নেওয়া গল্প। সত্যি নয়। তবে সত্যি হতেও পারে। গল্প শুনতে যেতে হবে ভবানীপুরের রূপচাঁদ মুখার্জি লেনে। গল্প শোনাবে গদাই।

এসব শুনে গদাইয়ের খোঁজ পড়তেই পারে। তবে গদাইকে পাওয়া যাবে কি না, তা বলা মুশকিল। কারণ, গদাই আছে কল্পনায়। কল্পনার গদাই-ই এবার ভবানীপুরের রূপচাঁদ মুখার্জি লেনের পুজোর থিমমেকার, সম্পাদক, সদস্য। মানে হর্তাকর্তা সব... কল্পনার গদাইয়ের পিছনে লুকিয়ে একটা গল্প। একবার এমন বন্যা এসেছে, কলকাতা ভাসছে। দুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে আর্থিক সাহায্য করছে পুজো কমিটিগুলো। থিমের বাস্তবায়নে যে খরচ দরকার, তাও নেই। তখনই এল পাড়ার ছেলে গদাই। স্বপ্নের ফেরিওয়ালা হয়ে। তারপর?

৭৩ বছরের পুজো। হোর্ডিংয়ে গদাইকেই প্রকাশ্যে এনেছেন উদ্যোক্তারা। কল্পনা আর বাস্তবের দ্বন্দ্ব কাটিয়ে গদাইয়ের গল্প শুনতে যেতে হবে রূপচাঁদ মুখার্জি লেনের পুজোয়।

First published: 10:57:12 PM Sep 14, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर