স্মরণে ঋতু... অপর্ণা সেন-এর বড় মেয়ে ডোনার বিয়ের তত্ত্বের উপরে ছড়া লিখে দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ--

Rituparno Ghosh

তিনি তাঁর অবদান রেখে গিয়েছেন বাঙালির সংস্কৃতি জগতে৷ তাঁর (Rituparno Ghosh) মৃত্যু বার্ষিকীকে ঋতু স্মরণ....

  • Share this:

    #কলকাতা: ঋতু আসে, তবে আসেন না ঋতুপর্ণ(Rituparno Ghosh)৷ তিনি তাঁর অবদান রেখে গিয়েছেন বাঙালির সংস্কৃতি জগতে৷ তাঁর কাজের মাধ্যমে তিনি আজীন থেকে যাবেন বাঙালির জীবনে৷ তাঁর অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ হয়েছিলেন সকলে৷ সাধারণ বাঙালিকে নতুন করে ভাবতে শিখিয়েছিল ঋতুপর্ণের ছবি৷ মধ্যবিত্ত জীবনে এনেছিল রঙিন ছোঁয়া৷ তাই তাঁকে হারিয়ে কষ্ট পেয়েছিল সিনেমাপ্রেমীরা৷ তবে শুধু সিনেমা জগত নয়, বাংলা পাঠকরাও হারিয়েছিল তাঁর প্রিয় লেখককে৷ এক কথায় ঋতুপর্ণের মৃত্যু এক অপূরণীয় ক্ষতি৷  তাঁর মৃত্যু বার্ষিকীকে ঋতু স্মরণ....

    অভিনেত্রী, পরিচালিকা অপর্ণা সেন-এর সঙ্গে ঋতুপর্ণের যোগ ছিল খুব নিবিড়৷ তাই তো অপর্ণার বড় মেয়ে ডোনার বিয়েতে তত্ত্ব সাজানোর সময় প্রত্যেকটা ডালার উপরে ছড়া লিখে দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। সাধারণ বিয়ে বাড়ির তত্ত্বও যে কীভাবে অনন্য হয়ে উঠতে পারে, তা বুঝিয়ে দিয়েছিলেন ঋতু৷ আসলে তাঁর সবকিছুর মধ্যেই ছিল শৈল্পিক ছোঁয়া৷ রইল সেখান থেকেই বাছাই করা কিছু ছড়া--

     ১) তুঁতে রঙের বেনারসী, সাদা রঙের পাড়ে সোনার বরণ কল্কা করা--অপূর্ব বাহারে ! তিনকোণা এক রুমাল আছে, শাড়ির ভাঁজে রাখা সাদা সুতীর রুমাল, তার এককোণে ফুল আঁকা

    ২) বাদলা কাজের শিফন শাড়ী, পীচফলের রঙ ব্লাউজ আছে পাড়বসানো--ভিন্নরকম ঢং। সাদা রুমালটিতে কেমন গোলাপী রঙের কাজ। সব মিলিয়ে দারুণ হবে নতুন কনের সাজ।

    ৩) তুঁতে রঙের রাজকোট, তার গোলাপ রঙের পাড়, রঙ মেলানো ব্লাউজ সাথে, কেমন চমৎকার ! টিপের পাতা সাজিয়ে দিলাম তুঁতে শাড়ীর ভাঁজে, সারাজীবন করবে আলো দুটি ভুরুর মাঝে।

    ৪) ঘিয়ে রঙা ঢাকাই শাড়ী, লাল রঙা তার পাড়। জরির ছোঁয়ায় সাজটি যেন লক্ষ্মী প্রতিমার। টুকটুকে লাল ব্লাউজ আছে, রং মিলিয়ে কেমন ! লক্ষ্মী সাথে আপনি এলেন মা লক্ষ্মীর বাহন।

    ৫) বেগনী রঙের রেশম শাড়ী, সম্বলপুর থেকে টুকটুকে লাল রঙ রয়েছে, আঁচল পাড়ে ঢেকে ব্লাউজ আছে, সঙ্গে আছে চুড়ির গোছা ষোল রং মিলিয়ে পরবে বলে সঙ্গে দেওয়া হ'ল।

    ৬) টুকটুকে রং চিকন শাড়ী পরবে মোদের মেয়ে গোলাপী রং ফুলে ফুলে টাকবে শরীর ছেয়ে। সেই রঙেরই চোলি, মেয়ের রূপ করে ঝলমল কাঠের সিঁদুরকৌটো দিলাম, কপালে জ্বলজ্বল।

    ৭) নক্সা করা তোয়ালেটা পাতা ডালার মাঝে চুকরি ভরা প্রসাধনী লাগবে কনের সাজে। নিরা রিচি, ক্রোয়ি, তাদের জগৎজোড়া নাম এসব ভেবে সাজিয়ে কনের সঙ্গে পাঠালাম।

    ৮) জোব্বা পরা ফ্যাশন এখন, কাফতান তার নাম আগাগোড়া আরশি ঢাকাআ তিনটে পাঠালাম দু'খানি তার কলমকারি রঙবাহারি কাজে। অন্যটিতে আয়না দেওয়া, সাদা--বুকের মাঝে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: