পয়লা বৈশাখ নয়, অষ্টমী পুজোর শেষে নবমী শুরুর সন্ধিক্ষণই নববর্ষে প্রবেশের সময়! দাবি কিছু গবেষকের

পয়লা বৈশাখ নয়, অষ্টমী পুজোর শেষে নবমী শুরুর সন্ধিক্ষণই নববর্ষে প্রবেশের সময়! দাবি কিছু গবেষকের

representative image

পয়লা বৈশাখ নয়, অষ্টমী পুজোর শেষে নবমী শুরুর সন্ধিক্ষণই নববর্ষে প্রবেশের সময়! দাবি কিছু গবেষকের

  • Share this:

    #কলকাতা: আশৈশব জেনে আসছি, ১ বৈশাখ বাংলা নববর্ষ। কিন্তু অনেক গবেষকদের মতে এটা ভুল তথ্য! তাঁদের দাবি, পয়লা বৈশাখ নয়,  শারদোৎসব নববর্ষ প্রবেশের উৎসব।

    তাঁদের মতে,ঋকবেদের কালে 'হিম' (শীত) ঋতুতে বর্ষ গণনা শুরু হত। সেই কারণেই, ঋষিরা বছরকে 'হিম' বলতেন। দেবতার কাছে প্রার্থনা করতেন, 'যেন আমরা শত হিম জীবিত থাকি।'

    পরে শরৎ ঋতু থেকে আর একটি বছর গণনা শুরু হয়। সেই বছরের নাম 'শরৎ'। বৃহদ্ধর্ম পুরাণে উল্লেখ রয়েছে- 'আশ্বিনাদি মতাঃ মাসাঃ', অর্থাৎ- আশ্বিন থেকে বছরের মাস গোনা শুরু হয়েছে! এই সময় ঋষিরা দেবতাদের কাছে প্রার্থনা করতেন, 'আমরা যেন শত শরৎ জীবিত থাকি।' সংস্কৃত ভাষায় শরৎ শব্দের মানে বছর।

    আরও পড়ুন-নববর্ষে বেড়িয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেপিঠে! রইল হদিশ

    কিন্তু, শরতের কোন সময়ে নববর্ষ শুরু হয়েছিল? গবেষকরা বলছেন, রবির উত্তরায়ণ আরম্ভ থেকে হিম বছরের গণনা শুরু। চান্দ্রমাস শুক্ল প্রতিপদে উত্তরায়ণ আরম্ভ ধরে, এর আটমাস পরে এবং প্রতি মাসে এক তিথি বৃদ্ধি ধরে আশ্বিন শুক্ল অষ্টমী-নবমীর সন্ধিক্ষণে শরৎ ঋতুর আরম্ভ ধরা হয়েছে।

    বর্ষা-শরতের সন্ধিক্ষণেই দুর্গা পূজার সন্ধিক্ষণ। এইকারণেই দুর্গাপূজায় সন্ধিক্ষণের মাহাত্ম্য। তাঁরা এমনটাও দাবি করেন,

    শারদোৎসব-দুর্গোৎসব নয়, শরৎ-ঋতু প্রবেশ জনিত উৎসব। এই উৎসব সাড়ে ছয় হাজার বছর ধরে চলে আসছে। । অষ্টমী পুজোর শেষে নবমী শুরুর সন্ধিক্ষণ নববর্ষে প্রবেশের সময়। এই সন্ধিপুজোয় ১০৮টি প্রদীপ জ্বালানো হয়। এই প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্যে দিয়েই নতুন বছর আলোক উজ্জ্বল হোক, এই প্রার্থনা করা হয়।

    আরও পড়ুন-পয়লা বৈশাখের সঙ্গে বাঙালির কোনও সম্পর্ক নেই, এর সৌজন্যে মহামতী আকবর

    First published: