থিম পদ্ম, ভবানীপুর সর্বজনীনের উমা সাজছে আরেক উমার হাতে

পৌলমীর হাত ধরেই আধুনিক হচ্ছে সাবেক ভবানীপুর সর্বজনীন। উন-নব্বইতম বছরে প্রথম থিমের তালিকায় নাম লেখাল দক্ষিণ কলকাতার ঐতিহ্যের পুজো

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 01:33 PM IST
থিম পদ্ম, ভবানীপুর সর্বজনীনের উমা সাজছে আরেক উমার হাতে
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 01:33 PM IST

#কলকাতা: দু-চোখে একবগ্গা জেদ। কানে ঝোলানো ত্রিশূলে উমার আগমনী বার্তা। ভবানীপুর সর্বজনীনের উমা সাজছে নোয়াপাড়ার আরেক উমার হাতে। আর্ট কলেজে পড়তে না পারার আক্ষেপ নিয়েই পদ্মের ভবানীপুরে পদ্মের পাপড়িতে শান্তির বার্তা দিচ্ছেন পৌলমী গুহ।

রং-তুলি, ক্যানভাসেই দিনযাপন। ছোট্ট থেকেই মনটা উড়ু উড়ু। লেখাপড়ায় মন থাকলেও, স্বপ্নরা বাসা বাঁধত কল্পনায়। কল্পনার রংয়ে ভরে উঠত সাধের ক্যানভাস । আজ স্বপ্ন সফল পৌলমী গুহর। তাঁর একার কাঁধে এবার উমার সংসার সাজানোর গুরুদায়িত্ব।

পৌলমীর হাত ধরেই আধুনিক হচ্ছে সাবেক ভবানীপুর সর্বজনীন। উন-নব্বইতম বছরে প্রথম থিমের তালিকায় নাম লেখাল দক্ষিণ কলকাতার ঐতিহ্যের পুজো। বাবা-মা চাননি মেয়ে শিল্পী হোক। তাই আর আর্ট কলেজে পড়া হয়নি। আক্ষেপ বুকে আঁকড়েই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানির স্নাতক পৌলমী ইনটেরিয়র ডিজাইনিং-য়ের প্রশিক্ষণ নেন। শিখে ফেলেন গ্রাফিকসের কারিকুরিও। গড়ে তোলেন নিজস্ব রং-তুলির সংসার। তিনবছর বিভিন্ন থিম মেকারদের সঙ্গে কাজ করার পর এবারই প্রথম স্বাধীনতা।

পৌলমীর থিম এবার পদ্ম। মণ্ডপের ভিতর-বাইরে ছোট-বড় পদ্মের কোলাজ। প্লাইউডের উপর থার্মোকল, রেকসিন, কাগজের জাদুতে রঙিন ইনস্টলেশন। তবে এ পদ্ম রাজনীতির নয়। নেহাতই শান্তির প্রতীক। দাবি উদ্যোক্তাদের।

মূর্তি তৈরি করছেন সনাতন রুদ্র পাল। থিমের খুঁটিনাটি তৈরিতে নাওয়া-খাওয়া ভুলেছে পৌলমীর টিম ‘ বিয়ন্ড দ্য ব্রাশ’। সব তো শুরু। নোয়াপাড়ার চব্বিশ বছরের উমার চোখে এখন আকাশছোঁয়ার স্বপ্ন।

Loading...

First published: 01:33:41 PM Sep 05, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर