আর্থিক অনটনে পড়েছিলেন উত্তম! সেই সময় গৌরীদেবীর গয়নার বিল চুকিয়ে ছিলেন সুপ্রিয়াদেবী

আর্থিক অনটনে পড়েছিলেন উত্তম! সেই সময় গৌরীদেবীর গয়নার বিল চুকিয়ে ছিলেন সুপ্রিয়াদেবী
photo source collected

একদিন হঠাৎ উত্তমকুমারের নামে ৭০ হাজার টাকা বিল আসে। কিন্তু এতটাকার বিল কিসের? উত্তমকুমারের তো তখন মাথায় হাত

  • Share this:

#কলকাতা: উত্তমকুমার যখন মহানায়ক হননি তখন ভালবেসে বিয়ে করেছিলেন গৌরী দেবীকে। উত্তমকুমারের বোনের বান্ধবী ছিলেন গৌরি দেবী। অসম্ভব সুন্দরী তায় আবার বড়লোকের মেয়ে। উত্তমকুমার সাধারণ মধ্যবিত্ত ঘরের ছেলে। গৌরী দেবীকে ভালবাসার কথা জানাতেই সময় লেগেছিল অনেকটা। বিয়ের পর দিব্যি ছিলেন দুজনে। এদিকে উত্তমকুমার টলিউডে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করছেন। গৌরি দেবী খুব ভালবাসতেন গয়না। উত্তম ধীরে ধীরে টলিউডের মহানায়ক হয়ে উঠলেন। তাদের এখটি ছেলেও হল। ওদিকে উত্তমের জীবনে এলেন আর একজন ভালবাসার মানুষ সুপ্রিয়াদেবী। সুপ্রিয়াদেবীকে ভালবাসার পর উত্তম তাঁকে নিয়ে ময়রা স্ট্রিটের বাড়িতে থাকতে শুরু করলেন। তবে ভবানীপুরের বাড়িতেও তিনি চলে আসতেন মাঝে মাঝেই। কারণ গৌরিদেবীর প্রতিও তাঁর ভালবাসা তখনও মরেনি। কিন্তু সম্পর্ক একেবারেই ভাল ছিল না। তবে সম্পর্ক না থাকলেও গৌরীদেবীর জন্মদিনে প্রত্যেকবার উত্তম একটি সোনার গয়না উপহার দিতেন।

এরপর উত্তমকুমার সিনেমা বানাবেন বলে প্রযোজক হলেন। তিনি বাংলা ছবির পাশাপাশি হিন্দি ছবিও পরিচালনা করতে শুরু করেন। 'ছোটি সি মুলাকাত'-এ তিনি নিজে নায়ক হন আর বৈজয়ন্তী বালা নায়িকা। এই ছবিটি ডাহা ফ্লপ করে। তাঁর প্রযোজিত একটি ছবিও সফল হয় না। সেই সময় উত্তমকুমারের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ হয়। সুপ্রিয়াদেবী তখনও কিন্তু পাশেই ছিলেন মহানায়কের। নিজের জন্য কিচ্ছু না চেয়ে পাশে থেকেছেন। তবে গৌরীদেবী কিন্তু নিজের অভিমান ভেঙে পাশে থাকেননি মহানায়কের। সুপ্রিয়াদেবী ময়রা স্ট্রিটের বাড়িতে রয়েছেন। উত্তমও সেখানেই থাকেন। একদিন হঠাৎ উত্তমকুমারের নামে ৭০ হাজার টাকা বিল আসে। কিন্তু এতটাকার বিল কিসের? উত্তমকুমারের তো তখন মাথায় হাত। দেখা গেল ওই বিলটা আসলে গয়নার। গৌরীদেবী ৭০ হাজার টাকার গয়না কিনে বিল পাঠিয়ে দিয়েছিলেন ময়রাস্ট্রটের বাড়িতে। সেই গয়নার বিল শোধ করেছিলেন সুপ্রিয়াদেবী। নিজের গয়না বিক্রি করে গৌরীদেবীর গয়নার বিল চোকাতে হয়েছিলেন সুপ্রিয়াদেবীকে।

First published: 06:02:41 PM Jul 24, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर