• Home
  • »
  • News
  • »
  • explained
  • »
  • জ্যাক মা-র সঙ্গে চিনের সরকারের সমস্যা কোথায়? জানুন বিশদে!

জ্যাক মা-র সঙ্গে চিনের সরকারের সমস্যা কোথায়? জানুন বিশদে!

photo source collected

photo source collected

গত বছর বেশ কয়েকটি ঘটনায় সরকারের বিরুদ্ধাচারণ করতে দেখা যায় জ্যাক মা'কে।

  • Share this:

জ্যাক মা (Jack Ma)। আলিবাবা গ্রুপের (Alibaba Group) প্রতিষ্ঠাতা চিনের এই ধনকুবের আজকাল প্রায়শই সংবাদ শিরোনামে উঠে আসেন। কখনও তাঁর প্রতিষ্ঠানকে সরকারের নিয়ন্ত্রাধীনে নেওয়া হয়েছে। কখনও আবার মালিকানা থেকে সরানো, জরিমানা করা-সহ নানা পদক্ষেপ করা হচ্ছে। সরকারের সঙ্গে জ্যাক মা-র যেন এক ঠাণ্ডাযুদ্ধ জারি। কিন্তু কেন? ঠিক কোথায় সমস্যা রয়েছে?

কেন সরকারের কাছে বড় চিন্তার কারণ জ্যাক মা?

দিন কয়েক একটি খবর প্রকাশ্যে আসে। শোনা যায়, জ্যাক মা-র আলিবাবাকে ১০০ কোটি ডলারের জরিমানা দিতে হতে পারে। আসলে গত বছর বেশ কয়েকটি ঘটনায় সরকারের বিরুদ্ধাচারণ করতে দেখা যায় জ্যাক মা'কে। ফলে সরকার জ্যাক মা-র প্রতিষ্ঠানের উপরে কড়া হয়। এর মাঝে আবার সরকারের নিয়ম-নীতি লঙ্ঘণ করে Alipay-র রমরমা শুরু হয়। এক কথায় বলে গেলে একের পর সমস্যা তৈরি করছেন জ্যাক মা। যা চিনের সরকারের নিয়ম-নীতি ও ভাবমূর্তি নষ্ট করতে যথেষ্ট। এর জেরে কোথাও না কোথাও সরকারের কপালেও চিন্তার ভাঁজ পড়েছে।

কোথায় সমস্যা?

গত বছর ডিসেম্বরে ঘটনার সূত্রপাত। Alibaba-র তদন্ত করতে একটি অ্যান্টি-ট্রাস্ট ইনভেস্টিগেশন টিম তৈরি করে চিনের প্রশাসন। দেখা যায় আলিবাবার চেয়ারম্যান পদে না থেকেও একটি বড় অংশের শেয়ার রয়েছে জ্যাক মা-র হাতে। কোথাও না কোথাও পিছন থেকে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজে যোগ রয়েছে তাঁর। এই ঘটনার মাসখানেক আগে চিনের ব্যাঙ্ক ও প্রশাসনকে আক্রমণ করেন জ্যাক মা। হঠাৎই চিনের বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ নীতি নিয়ে প্রকাশ্যে সমালোচনা করেন। আর এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই আলিবাবার বিরুদ্ধে বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগ তুলে তদন্ত শুরু করে শি জিনপিং-এর (Xi Jinping) সরকার। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই কারণেই প্রশাসনের রোষের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁর সংস্থাকে।

বলা বাহুল্য, চিনের নিরাপত্তা বিভাগ জ্যাক মা’র সংস্থাগুলিকে নিজেদের তত্ত্বাধানে নেওয়ার পর থেকে আলিবাবা ও অ্যান্ট গ্রুপের (Ant Group) পতন শুরু হয়। এর পর অ্যান্ট গ্রুপের প্রায় ৩৭ বিলিয়ন IOP স্থগিত করা হয়। এই সব ঘটনার পর বেশ কয়েক মাস ধরে মিডিয়ার সামনে আসেননি তিনি। জনসমক্ষে দেখা যায়নি জ্যাক মা-কে। শেষমেশ জানুয়ারিতে একটি ভিডিওতে ফের দেখা যায় তাঁকে। এর পর থেকেই জল্পনা শুরু হয়েছে।

কে এই জ্যাক মা ?

এক বর্ণময় জীবনের নাম জ্যাক মা। তরুণদের অনুপ্রেরণার নাম জ্যাক মা। প্রথমে গাইড। তার পর ইংরেজির শিক্ষক। সেখানে থেকে সফল উদ্যোগপতি। এক সময়ে চিনের সব চেয়ে ধনীর তালিকায় নাম জুড়ে যায় তাঁর। তিনি এতটাই বিখ্যাত ছিলেন যে, ২০১৬ সালে নির্বাচনের পর আমেরিকার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন।

১৯৬৪ সালে পূর্ব চিনের হ্যাংজাউ (Hangzhou) শহরে জন্মগ্রহণ করেন জ্যাক মা। তিন সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়। পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব একটা ভাল ছিল না। এদিকে ছাত্র হিসেবেও খুব একটা ভালো ছিলেন না জ্যাক। তাই অল্প বয়সেই পর্যটকদের গাইডের কাজ নেন। Forbes-এর একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেই সময়ে প্রতি দিন সকাল পাঁচটায় উঠে ৪০ মিনিট সাইকেলে চেপে কাজে যেতেন তিনি। গাইডের ডিউটি শেষ হলে পর্যটকদের কাছ থেকে টাকা বা টিপস নিতেন না। বদলে তাঁদের ইংরেজি শেখানোর কথা বলতেন। পরের দিকে হ্যাংজাউ টিচার্স ইন্সটিটিউটে সুযোগ পান তিনি। ১৯৮৮ সালে গ্র্যাজুয়েশনের ডিগ্রি পান।

এবার শুরু হয় চাকরির চেষ্টা। ৩০টি চাকরির জন্য আবেদন করেন। কিন্তু বার বার ব্যর্থ হন। সব শেষে স্থানীয় এক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি পড়ানোর চাকরি পান। মাসিক বেতন ছিল ১৫ ডলার। এর পর কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে একটি ট্রান্সলেশন কম্পানি খোলেন। ১৯৯৯ সালে আলিবাবা (Alibaba) খোলেন জ্যাক মা। গোটা বিশ্বে সাড়া ফেলে দেয় এই সংস্থা। ২০১৪ সালে নিউ ইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকায় নাম উঠে আসে জ্যাক মা-র সংস্থার। বর্তমানে জ্যাক মা-র সম্পদের পরিমাণ ২৫০০ কোটি ডলার।

Published by:Piya Banerjee
First published: