Home /News /entertainment /
চূর্ণীকে প্রকাশ্য চুম্বন জানালেন পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলি !

চূর্ণীকে প্রকাশ্য চুম্বন জানালেন পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলি !

photo source facebook

photo source facebook

শুধু প্রকাশ্য চুম্বনই নয়। বিবাহবাষির্কীতে আরও অনেক কিছু শুধু মাত্র চূর্ণীকেই দিলেন কৌশিক গাঙ্গুলি !

  • Share this:

    #কলকাতা: কৌশিক গাঙ্গুলি ও চূর্ণীর আজ বিবাহবার্ষিকী। কিন্তু এত বছরের বিবাহিত জীবনে কখনও নিজের স্ত্রীকে নিয়ে কিছু বলেননি কৌশিক। কেটে গিয়েছে অনেকগুলো বছর। ভালবাসার বিয়ে তাঁদের। ছেলে উজানও আজ বেশ বড়। সেও এসেছে অভিনয় জগতে। 'রসগোল্লা'র মতো ছবিতে অভিনয় করে উজান বুঝিয়েছে অভিনয়টা আসলে তাঁর রক্তে। তবে কৌশিক গাঙ্গুলি ছবি পরিচালক হিসেবে বাংলা কেন গোটা বিশ্বে বিখ্যাত। পিছিয়ে নেই চূর্ণীও। গত বছর চুর্ণী বেস্ট সংলাপ-এর জন্য পেয়েছেন ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড। কিন্তু তখনও চুপ ছিলেন কৌশিক। কিন্তু আর নয়।

    আজ কৌশিক তাঁদের বিবাহ বাষির্কীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় অর্থাৎ নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখলেন তাঁর জীবনের সবচেয়ে বড় প্রেরনা চূর্ণীকে নিয়ে মনের কথা। াজ কৌশিক যা হয়েছেন সব হয়েছে চূর্ণীর ভালবাসাতেই। চূর্ণী না থাকলে তিনি কিছুই পারতেন না তা অকপটে স্বীকার করে নিলেন পরিচালক। চূর্ণীকে প্রকাশ্য চুম্বন করলেন কৌশিক। কৌশিক লিখেছেন, "সকালে আমার আর চূর্ণীর এই ছবিটা ফেসবুকে পোস্ট করেছিলাম। লন্ডনে তোলা একান্ত ব্যক্তিগত সেল্ফি । তাও আজ ছবিটা দিলাম কারন কিছু ভাললাগার কথা জোরে বলতে ইচ্ছে করে। সবাইকে জানাতে ইচ্ছে করে ভিতরটা। আজ বিবাহবার্ষিকী আমাদের। এতগুলো বছরের পর চূর্ণীকেও বিব্রত করতে ইচ্ছে হলো। সেই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুতা থেকে স্নাতক উজান অবধি আমাদের জীবনটা কি অবলীলায় সামাল দিয়ে গেল সেই পাহাড়ী মেয়েটা, আমরাই জানি। বিয়ের পরপর সেই ছোট্ট বয়সে ওর নিজের অল্প রোজগারে আমার একটা অপারেশন থেকে, পরে কাজ কমিয়ে পুত্র বড় করার মতো ত্যাগ লিখলে, একটা উপন্যাস হবে। ও খুবই ব্যক্তিগত , লাজুক মানুষ, আমি বরং একটু প্রচারমুখী। অল্পেও নিজের ঢাক পেটাতে আমি এক বেলাও দেরী করি না, অথচ মেয়েটা মুখ বুজেই থেকে গেল, কেউ ওর আসল অবদানটা জানতেই পারে না। আমার জীবন আর সিনেমার কতটা জুড়ে চূর্ণী, খুব ঘনিষ্টরা ছাড়া কারোর কোনো ধারণা নেই। তাই আজ ছবিতে, কথায়, উচ্চারণ করে বলতে ইচ্ছে হল, "চূর্ণী, তোমাকে ছাড়া না হতাম আমি, না হতো আমার সংসার, না আমাদের উজান । অনুপ্রেরণা আর গতিপথ হারাতো আমার সিনেমার ভাষা। রাতজেগে আমার চিত্রনাট্য সংশোধনের অজানা স্মৃতি আজ সবাই জানুক। কোন নদীর জলে এমন ফসল ফলে আমার ছায়াছবিতে তাও জানুক সব্বাই। আমাদের অহংকার তুমি। জানি অস্বস্তিতে মুখ লাল হবে তোমার, তাও আজ তোমার জন্য প্রকাশ্য চুম্বন। " এই লেখা পড়লেই বোঝা যাচ্ছে কৌশিক ও চূর্ণীর সংসার জীবন সবটাই মিষ্টি ভালবাসায় গাথা।

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Churni Ganguly, Facebook, Kaushik Ganguly

    পরবর্তী খবর