• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • TINA DUTTA SHARES HER EXPERIENCE AFTER SHARING PHOTOGRAPH IN BIKINI IN SOCIAL MEDIA ARC

Tina Dutta : মোনোকিনি বা বিকিনিতে সামাজিক মাধ্যমে ছবি দিলে কী অভিজ্ঞতা হয় ‘উতরন’-এর টিনার?

টিনা দত্ত, ছবি-ইনস্টাগ্রাম

সাঁতারপোশাকে সামাজিক মাধ্যমে ছবি পোস্ট করে কী অভিজ্ঞতা হয়েছিল? জানিয়েছেন ‘উতরন’-এর টিনা দত্ত (Tina Dutta) ৷

  • Share this:

    মুম্বই : সাঁতারপোশাকে সামাজিক মাধ্যমে ছবি পোস্ট করে কী অভিজ্ঞতা হয়েছিল? জানিয়েছেন ‘উতরন’-এর টিনা দত্ত (Tina Dutta) ৷ বলেছেন, তাঁর অনুরাগীরা এখনও তাঁকে ‘উতরন’ ধারাবাহিকের ‘ইচ্ছা’ ও তার মেয়ে ‘মিঠি’ বলেই ভাবে ৷ ধারাবাহিকে এই দু’টি চরিত্রে তিনি অভিনয় করেছিলেন ৷ সংবাদমাধ্যমে টিনা বলেছেন, ‘‘একজন অভিনেতার পক্ষে একটি চরিত্র থেকে অন্য চরিত্রে যাওয়া কঠিন নয় ৷ কিন্তু কেউ যদি দীর্ঘ দিন ধরে মেগা ধারাবাহিকে অভিনয় করে যান, তাহলে তাঁর অভিনীত চরিত্র দর্শকের মনে গেঁথে যায় ৷ সেই ভাবমূর্তি মুছে অভিনেতাকে নতুন চরিত্রে ভাবা দর্শকদের পক্ষে খুব কঠিন ৷’’

    ২৯ বছর বয়সি অভিনেত্রী স্পষ্টতই জানিয়েছেন, অনুরাগীরা সামাজিক মাধ্যমে বিকিনি পরিহিত অবস্থায় তাঁর ছবি চান না ৷ বলেছেন, আজও যদি তিনি মোনোকিনি বা বিকিনিতে নিজের কোনও ছবি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করেন, অনুরাগীরা আপত্তি জানান ৷ তাঁরা মন্তব্য করেন, ‘ইচ্ছা কী করে এরকম পোশাক পরতে পারে?’

    একে একদিকে উৎসাহব্যঞ্জকই মনে করেন টিনা ৷ কারণ দর্শক এখনও তাঁর অভিনয় মনে রেখেছেন ৷ তবে পাশাপাশি তাঁর এ কথাও মনে হয়, দর্শক কেন তাঁকে পাশ্চাত্য পোশাকে মেনে নিতে পারেন না!

    জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘উতরন’ সম্প্রচারিত হয়েছিল ২০০৮-এর ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৫-র ১৬ জানুয়ারি অবধি ৷ এই দীর্ঘ সময়ে মোট ১৫৪৯ পর্ব সম্প্রচারিত হয়েছিল ৷

    দরিদ্র পরিচারিকার মেয়ে ইচ্ছা এবং ধনীর দুলারী তপস্যার মধ্যে ঘাত প্রতিঘাত নিয়ে শুরু হয়েছিল কাহিনি ৷ পরে তা এগিয়ে গিয়েছিল ইচ্ছা ও তপস্যার মেয়েদের প্রজন্মেও ৷

    টিনা ছাড়াও এই ধারাবাহিকের উল্লেখযোগ্য অন্যান্য কুশীলবরা ছিলেন রশমি দেশাই, বিকাশ ভল্লা, রোহিত খুরানা, সৃজিতা দে, ম্রুণাল জৈন ও অজয় চৌধুরি ৷

    শিশুশিল্পী হিসেবে কেরিয়ার শুরু করা টিনা অভিনয় করেছেন বেশ কিছু ধারাবাহিকে ৷ একাধিক রিয়্যালিটি শো-এর অংশও ছিলেন তিনি ৷ কিন্তু ‘উতরন’-এর মতো সাফল্য শীর্ষ পরের প্রচেষ্টাগুলিতে থেকে গিয়েছে অধরাই ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: