২০২০-তে নতুন শুরু ! বলিউডের এই পাঁচ অভিনেতা ওয়েব সিরিজেও জিতলেন মন

২০২০-তে নতুন শুরু ! বলিউডের এই পাঁচ অভিনেতা ওয়েব সিরিজেও জিতলেন মন

একটা সময় ছিল, যখন বড় পর্দার অভিনেতারা সহজে টেলিভিশনে মুখ দেখাতে চাইতেন না। তাঁদের মনে হত যে এতে তাঁদের ব্র্যান্ড ভ্যালু নষ্ট হবে।

একটা সময় ছিল, যখন বড় পর্দার অভিনেতারা সহজে টেলিভিশনে মুখ দেখাতে চাইতেন না। তাঁদের মনে হত যে এতে তাঁদের ব্র্যান্ড ভ্যালু নষ্ট হবে।

  • Share this:

#মুম্বই:  একটা সময় ছিল, যখন বড় পর্দার অভিনেতারা সহজে টেলিভিশনে মুখ দেখাতে চাইতেন না। তাঁদের মনে হত যে এতে তাঁদের ব্র্যান্ড ভ্যালু নষ্ট হবে। সে দিন এখন আর নেই। দেখতে দেখতে ছোট পর্দা বাড়তে বাড়তে বড় পর্দার কাঁধ প্রায় ছুঁয়ে ফেলল। একে একে তারকা থেকে মহাতারকা- গুটিগুটি পায়ে চলে এলেন ছোট পর্দায়। যখন অনলাইন কন্টেন্ট আস্তে আস্তে ভারতে এল, অনেকেই বলেছিলেন যে ও সব এখানে চলবে না। যাঁরা বলেছিলেন, তাঁদের একটা বড় অংশ এখন নেটফ্লিক্স (Netflix) আর অ্যামাজন প্রাইম (Amazon Prime) ছেড়ে নড়তে চান না।

কী বলিউড আর কী হলিউড, মোটামুটি সব তারকাই বুঝে গিয়েছেন যে ওটিটি (OTT) ছাড়া গতি নেই। এর একটা ভালো দিকও আছে। অনেক অভিনেতা বা অভিনেত্রীকে দীর্ঘ দিন বড় পর্দায় দেখা যায়নি। কিন্তু যখন তাঁরা ওয়েব প্ল্যাটফর্মে ডেবিউ করেছেন, তখন হইচই পড়ে গেছে। অনেকে আবার দুই মাধ্যমেই চুটিয়ে কাজ করছেন।

এই ২০২০ সালে যত খারাপ ঘটনাই ঘটুক না কেন, বলিউডের (Bollywood) এক ঝাঁক তারকা কিন্তু ওয়েব সিরিজে এই প্রথম দেখা দিয়ে সবাইকে ভালোলাগা উপহার দিয়েছেন। সেই তালিকায় এ বার চোখ রাখা যাক!

অভিষেক বচ্চনের (Abhishek Bachchan) ব্রিদ: ইনটু দ্য শ্যাডোস (Breath: Into The Shadows) দর্শকদের বেশ ভালো লেগেছে। অ্যামাজন প্রাইমের এই শোয়ের পর অভিষেকও যেন কেরিয়ারে অক্সিজেন খুঁজে পেয়েছেন। এমনিতে যে তাঁকে বড় পর্দায় দেখা যায় না, তা নয়। তবে বহু বছর হল তিনি কোনও হিট ছবি উপহার দেননি দর্শকদের।

সুস্মিতা সেন (Sushmita Sen) বড় পর্দা বাদ দিয়ে মোটামুটি সব জায়গাতেই সক্রিয় থাকেন। বিশেষ করে তাঁর প্রেমিককে নিয়ে তাঁর অসংখ্য ছবি ইন্সটাগ্রামে প্রায়ই দেখা যায়। তাই তাঁর ওটিটি ডেবিউ ছিল বহু প্রতীক্ষিত। ডিজনি হটস্টারের (Disney Hotstar) আরিয়া (Aarya) সুস্মিতার কেরিয়ারে একটা মাইলস্টোন তো বটেই। তাঁর সঙ্গে বহু দিন পর দেখা গেল চন্দ্রচূড় সিংকেও (Chandrachur Singh)।

আফতাব শিবদাসানিকে (Aftab Shivdasani) সকলেই প্রায় ভুলতে বসেছিলেন। তাঁর বিয়ের সময়ে দু'-একটা ছবি ছাপা হয়েছিল, ব্যাস, ওই শেষ। জি ফাইভের পয়জন টুতে (Poison 2) ফাটিয়ে অভিনয় করেছেন আফতাব। প্রমাণ করেছেন এ ভাবেও ফিরে আসা যায়।

সুস্মিতা, আফতাব বা অভিষেক, এরা তিনজনেই বেশ কিছু দিন বড় পর্দা থেকে দূরে ছিলেন। বা তাঁদের ছবি সে ভাবে সাফল্য পায়নি। কিন্তু বর্ষীয়ান অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ (Naseeruddin Shah) যখন অ্যামাজন প্রাইমের বন্দিশ ব্যানডিটে দেখা দিলেন, সেটা সিনেপ্রেমীদের কাছে একটা উপরি পাওনা।

সব শেষে বলতেই হয় করিশমা কাপুরের (Karishma Kapoor) কথা। করিশ্মা একজন বলিষ্ঠ অভিনেত্রী। কিন্তু ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তিনি বেশ কিছু দিন নাজেহাল ছিলেন। সব কিছু সামলে তিনি ফিরলেন এএলটিবালাজি-র মেনটালহুডে (Mentalhood)।

Published by:Piya Banerjee
First published: