• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • SUSHANT SINGH RAJPUT CASE SIDDHARTH PITHANI BAIL REJECTED FOR WEDDING ON PAROLE TILL JULY 2 SANJ

Sushant Singh Rajput Case : সুশান্ত মামলায় জামিনের আবেদন খারিজ! বিয়ের জন্য প্যারোলে মুক্ত সিদ্ধার্থ পিঠানি...

জামিন না-মঞ্জুর Photo : File Photo

সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলায় ( Sushant Singh Rajput Case) তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু সিদ্ধার্থকে গ্রেফতার করেছিল নারকোটিকস কনট্রোল ব্যুরো (NCB)। এরপরেই বিয়ের জন্য জামিন চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন সিদ্ধার্থ (Siddharth Pithani)।

  • Share this:

    #মুম্বই : বিয়ের জন্য 'অন্তর্বর্তী অব্যহতি' পেলেন ড্রাগ মামলায় অভিযুক্ত সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি (Siddharth Pithani)। সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু মামলায় ( Sushant Singh Rajput Case) তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু সিদ্ধার্থকে গ্রেফতার করেছিল নারকোটিকস কনট্রোল ব্যুরো (NCB)। এরপরেই বিয়ের জন্য জামিন চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন সিদ্ধার্থ। কিন্তু তাঁর সেই আবেদন আজ খারিজ করে দেয় আদালত। তার বদলে বিবাহের অনুষ্ঠান সম্পূর্ণ করতে সিদ্ধার্থকে মাত্র কয়েকদিনের জন্য 'অন্তর্বর্তী অব্যহতি' দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

    আগামী ২৬ জুলাই বিয়ে সিদ্ধার্থ পিঠানির। সেই অনুষ্ঠানের জন্যই আদালতে জামিনের আবেদন করেছিলেন সিদ্ধার্থ। কিন্তু তাতে সায় দেয়নি হাইকোর্ট। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, বিয়ের সমস্ত রীতি মেটানোর পর ২ জুলাই তাঁকে ফের ফিরে আসতে হবে জেলে।

    গত বছর ১৪ই জুন প্রয়াত হন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। এরপর থেকেই গোটা দেশে চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে থেকেছে এই মামলা। আর এই মামলার তদন্তে যে নামটা বারেবারে ঘুরে ফিরে এসেছে তা হল সিদ্ধার্থ পিঠানি। কে তিনি? প্রয়াত অভিনেতার ক্রিয়েটিভ ম্যানেজার এবং ফ্ল্যাট মেইট। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলার সঙ্গে জড়িত মাদককাণ্ডে গত ২৬শে মে গ্রেফতার হন সিদ্ধার্থ পিঠানি।

    মিড-ডে'তে প্রকাশিত এক রিপোর্ট বলছে, গত বছর অগস্ট থেকেই নাকি সিদ্ধার্থকে নজরে রেখেছে এনসিবি। ১৪ই জুন সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ প্রথম দেখেছিল সিদ্ধার্থ পিঠানি, সিবিআই তথা মুম্বই পুলিশের রেকর্ড তেমনটাই বলছে। মাদককাণ্ডে সুশান্তের হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েলল মিরান্ডা ও পরিচারক দীপেশ সাওয়ান্ত গ্রেফতার হয়েছিল গত সেপ্টেম্বরেই, আপতত জামিনে মুক্ত তাঁরা। ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের সূত্র ধরেই নাকি এনসিবির জালে ধরা পড়েছে সিদ্ধার্থ পিঠানি। সুশান্তের মৃত্যুর পর নিজের পুরোনো অ্যাকাউন্টটি প্রথম প্রাইভেট এবং পরবর্তীতে ডিলিট করে দেন পিঠানি।

    প্রতিবেদনে বলা হয় সিদ্ধার্থ পিঠানি এনসিবির তদন্তকে গত বছর অগস্ট থেকেই এড়িয়ে চলেছে। কিন্তু চলতি বছর এপ্রিলে নতুন ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি জিম থেকে গ্রুপ ছবি পোস্ট করেন পিঠানি। ছবির ক্যাপশনে এই অভিযুক্ত লেখেন- ‘পিত্জা পাওয়া’। পাশাপাশি দু-সপ্তাহ আগেই নিজের বাগদানের ছবিও ইনস্টায় পোস্ট করেন তিনি।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: