corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই লকডাউনে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে কোথায় ঘুরছেন ইমন?

এই লকডাউনে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে কোথায় ঘুরছেন ইমন?

নিজে এবারে গরিবদের জন্য কিছু করতে চান বলে এগিয়ে এলেন শিল্পী ইমন চক্রবর্তী। এই লকডাউন নিয়ে কি ভাবছেন তিনি.... জানালেন আমাদের৷

  • Share this:

#লিলুয়া: নিজে এবারে গরিবদের জন্য কিছু করতে চান বলে এগিয়ে এলেন শিল্পী ইমন চক্রবর্তী। এই লকডাউন নিয়ে কি ভাবছেন তিনি.... জানালেন আমাদের৷

তুমি তো দেখলাম বেশ কিছু মানুষের সাহা্য্যে এগিয়ে এসেছো....

#ইমন: বিষয়টা হচ্ছে সারা পৃথিবীতে করোনা থাবা বসিয়েছে। সেখানে আমার মনে হয়েছে আমরা সকলে যদি অল্প কিছুও করতে পারি। সত্যি কথা বলতে কি আমি লিলুয়াতে থাকি। কিন্তু এখানে সেরকম ভাবে কোনও গরিবদের জন্যে আমি ব্যবস্থা দেখিনি। তবে মন্ত্রী অরূপ রায় আমাদের বেশ খানিকটা সাহায্য করেছেন.।

তুমি তো নিজে দাঁড়িয়ে থেকে খাবার দিচ্ছ দেখলাম...

#ইমন: আসলে আমার একটা আ্যকাডেমি আছে 'ইমন সংগীত অ্যাকাডেমী' সেখান থেকে আমরা প্রায় ১০০ জনের হাতে সাহায্য তুলে দিচ্ছি।

কী কী দিচ্ছো?

#ইমন: এক একটা ব্যাগে ৫কেজি চাল, ডাল, আলু, নুন তেল এই সবই দিচ্ছি।মন্ত্রী অরূপ রায় আমাদের আরো ৫০ প্যাকেট দিয়ে সাহায্য করছেন। আমরা একেবারে নয়, ভাগে ভাগে এগুলো মানুষের হাতে তুলে দিচ্ছি।

কি করে বুঝবে কাদের সত্যি এটার

#ইমন: আমাদের একটা টিম আছে যেখানে ওরা একটা অঞ্চলে গিয়ে তাঁদের সঙ্গে কথা বলে তাঁদের হাতে কুপন দিয়ে এসেছেন। তারাই আজকে এখানে এসেছিলেন।

লকডাউন কি ভাবে কাটাছে

#ইমন: মি টাইম যেটাকে বলে সেটা তো আমাদের হয়ে ওঠেনা। কিন্তু এইভাবে একটা সময় কাটাতে হবে সেটাও চাইনি। আমি একা থাকতে বা নিজের মতন সময় কাটাতে ভালবাসি কিন্তু এইভাবে নয়।যাই হোক এখন তো সবাই আমরা নিজের কাজ নিজেই করছি সেইভাবে খানিকটা শরীর চর্চাও হয়ে যাচ্ছে। অনেক ঘন্টা দিনে গানের রেওয়াজ করতে পারছি।যেটা আমি ভাবতেও পারিনা। আমার বাবার আজ রিটায়ারমেন্টের দিন ছিল।যাই হোক সেটা তো এখন আর হলোনা।বাবা বাড়িতেই আছেন। অনেকটা সময় বাবার সঙ্গে কাটাচ্ছি। পোষ্য ল্যাব্রাডর 'বুলবুলির' সঙ্গেও অনেকটা সময় কাটছে আমার।

অনেক শিল্পীরাই বলছেন এখন কতদিন কাজ বন্ধ থাকবে। শো আবার কবে হবে। সব ঠিক হয়ে গেলেও একটা চিন্তা সবার মধ্যেই কাজ করছে তোমার কি কোনও টেনশন হচ্ছে সেটা নিয়ে?

#ইমন: দেখো মাথার পেছনে একটা চিন্তা তো আছেই।কী হবে সেটা আমরা সবাই ভাবছি। কিন্তু আমি সব্বাইকে বলবো ভবিষ্যৎটা নয়,বর্তমানটা ভাব। যে বড় লড়াইটা আমরা লড়ছি সেটা জেতাটাই এখন আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত। বিনোদন এখন সবার শেষে আসবে।গান মানুষ শুনবেনই কিন্তু এই মুহূর্তে সেটা ভেবে আমরা কিছু করতে পারবনা বরং স্ট্রেস বেড়ে যাবে।

নিজে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলে, তোমার কোনো মেসেজ আছে নাকি সকলের জন্য...

#ইমন: দেখো এখন যে পরিস্থিতিতে আমরা রয়েছি লকডাউন ছাড়া এই ভাইরাসকে আমরা হারাতেই পারব না। সবাই একসঙ্গে যদি গরিব মানুষগুলোর পাশে অল্প কিছু দিয়েও সাহায্য করতে পারি সেটা অনেক বেশি দরকার।শাড়ী চ্যালেঞ্জ আর ছোটবেলার ছবি চ্যালেঞ্জ ছাড়াও অনেক কিছু করার আছে আমাদের এখন। একটু অল্প নিজেদের থেকে দিলেও সেটা বড় সাহায্য হবে গরিব মানুষদের জন্য।

Published by: Akash Misra
First published: March 31, 2020, 6:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर