কদর্য আক্রমণে নোংরা শ্রুতির প্রোফাইল, ক্ষোভ উগরে দিলেন ‘দেশের মাটি’-র নোয়া

শ্রুতি দাস, ছবি-ফেসবুক

‘ নোয়াকে মানছি না, মানব না’-এই ধরনের পোস্টে ছয়লাপ শ্রুতি দাসের (Shruti Das) প্রোফাইল ৷ ফের ট্রোলিংয়ের শিকার হয়ে অভিনেত্রী আবার ক্ষোভ উগরে দিলেন ফেসবুকে ৷

  • Share this:

    কলকাতা : ‘ নোয়াকে মানছি না, মানব না’-এই ধরনের পোস্টে ছয়লাপ শ্রুতি দাসের (Shruti Das) প্রোফাইল ৷ ফের ট্রোলিংয়ের শিকার হয়ে অভিনেত্রী আবার ক্ষোভ উগরে দিলেন ফেসবুকে ৷

    শ্রুতির কথায়, এ সব কথা তাঁকে শুনিয়ে উদ্দেশ্য পূর্ণ হবে না নেটিজেনদের ৷ আশানুরূপ ফল তাঁরা পাবেন বলে মনে হয় না অভিনেত্রীর৷ তাঁর কথায়, তিনি নায়িকা হতে আসেননি, এসেছেন অভিনেত্রী হতে ৷ নিজেকে নায়িকা বলে দাবিও করেন না ৷ যাঁরা তাঁকে যথাযথ চরিত্র দিয়েছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন শ্রুতি ৷ লড়াকু এই শিল্পীর দাবি, কোনওরকম ট্যাগ, পোস্ট করে সামাজিক মাধ্যমে লাঞ্ছনার পরও তাঁকে থামানো যাবে না ৷

    শ্রুতি এই মুহূর্তে অভিনয় করছেন ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকে ৷ প্রথমে দিব্যজ্যোতি দত্তর ‘কিয়ান’ চরিত্রের বিপরীতে শ্রুতির ‘নোয়া’ ভূমিকা খুবই জনপ্রিয় ছিল দর্শকদের কাছে ৷ কিন্তু পরে রাজা-মাম্পি জুটি অনেক বেশি দর্শকদের কাছের হয়ে যায় পছন্দের মাপকাঠিতে ৷ সামাজিক মাধ্যমে মাঝে মাঝেই দাবি ওঠে, নোয়া কিয়ানের বদলে রাজা  মাম্পিকে অনেক বেশি দেখাতে হবে ৷ এই দাবিতে আবার ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিককে বয়কট করার ডাকও উঠেছে ৷

    তবে এর আগেও শ্রুতি ট্রোলড হয়েছেন ৷ ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসে তাঁকে অশ্লীল প্রশ্ন শুনতে হয়েছে ৷ তিনি এড়িয়ে যাননি ৷ তাঁর যোগ্য উত্তরে শেষ অবধি থামতে বাধ্য হয়েছেন ট্রোলার ৷ গায়ের রঙের জন্যও কটূক্তি শুনতে হয়েছে ‘ত্রিনয়নী’, ‘দেশের মাটি’-র শ্রুতিকে ৷

    কিন্তু তিনি বরাবরই স্পষ্টবাদী ৷ ব্যক্তিগত পরিসর নিয়েও লুকোচুরি নেই ৷ পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে তাঁর প্রেম নিয়েও অনুরাগীদের বলেছেন তিনি ৷ প্রতি বার ট্রোলিং থেকে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন ৷ এ বারও বলেছেন, তিনি থামতে জানেন না ৷ ট্রোলারদের সুস্থতা কামনা করে লড়াকু অভিনেত্রীর আরও এগিয়ে যাওয়ারই ইঙ্গিত তাঁর পোস্টে ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: