Rahul Arunoday Banerjee: ‘কল্যাণীয় অরুণোদয়’ থেকে ‘রাহুলকে স্নেহবশত’, বিশেষ স্মৃতিতে আচ্ছন্ন অভিনেতা

রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়, ছবি-ফেসবুক

প্রয়াত দুই ব্যক্তিত্বকে স্মরণ করেছেন রাহুল ৷ ফেসবুকে পোস্টও দিয়েছেন তাঁদের নিয়ে ৷ দু’জনের সঙ্গেই জড়িয়ে আছে বই ৷

  • Share this:

    কলকাতা : অভিনেতা রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায় এখন করোনা আক্রান্ত হয়ে বাড়িতে নিভৃতবাসে ৷ অবসরে তাঁর হাতে বই ৷ সঙ্গে একরাশ স্মৃতি ৷ প্রয়াত দুই ব্যক্তিত্বকে স্মরণ করেছেন রাহুল ৷ ফেসবুকে পোস্টও দিয়েছেন তাঁদের নিয়ে ৷ দু’জনের সঙ্গেই জড়িয়ে আছে বই ৷

    শুক্রবার ভার্চুয়াল দুনিয়ার টাইমমেশিনে রাহুল ফিরে গিয়েছেন দু’ বছর আগে ৷ শেয়ার করেছেন পুরনো একটি পোস্ট ৷ ২০১৯-এর ১১ জুন রাহুল ছবি দিয়েছিলেন ‘সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় গদ্য সংগ্রহ’-এর প্রথম খণ্ডের ৷ তার প্রথম পৃষ্ঠায় প্রয়াত অভিনেতার মুক্তাক্ষরে লেখা, ‘রাহুলকে স্নেহবশত—সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়’ ৷ তার নীচে সে দিনের তারিখ, ১১.৬.২০১৯ ৷

    অমূল্য উপহারের ছবির ক্যাপশনে রাহুল দু’ বছর আগে লিখেছিলেন ‘কয়েকটা দিন আলাদা হয়’৷ সেরকমই আলাদা এক দিন দেড় দশকেরও আগে এসেছিল রাহুলের জীবনে ৷ নিজেই লিখেছেন, সে সময় তিনি ১৮ বছরের সদ্য তরুণ ৷ বয়সের ঝোঁকে করে ফেলেছিলেন ‘বিশ্বাসঘাতক’-এর নাট্যরূপ ৷ তার আগে টেলিফোনে অনুমতি নিয়ে রেখেছিলেন লেখক নারায়ণ স্যান্যালের কাছ থেকে ৷

    মহড়ার পর এ বার সে নাটক মঞ্চস্থ হওয়ার পালা ৷ কিছুটা ভয়ে ভয়েই রাহুল গিয়েছিলেন চক্রবেড়িয়ায় লেখকের বাড়িতে, নাটকের টিকিট নিয়ে ৷ রাহুল যখন পৌঁছেছেন, নারায়ণ স্যান্যাল তখন জ্যামিতি করছিলেন ৷ এখনও রাহুল মনে করেন, সামনে থেকে ওরকম সুপুরুষ তিনি কমই দেখেছেন ৷

    প্রথম আলাপে রাহুলকে সাদরে আলিঙ্গন করেছিলেন সাহিত্যিক ৷ সে দিনটা ছিল ২৫ বৈশাখ ৷ এমন দিনে ভক্তকে উপহার না দিয়ে বিদায় জানাতে চাননি ‘কাঁটায় কাঁটায়’ সিরিজের অজেয় সাহিত্যিক ৷ উপহার দিয়েছিলেন তাঁর আরও একটি অনবদ্য বই ‘তিমি তিমিঙ্গিল’ ৷ তখন রাহুল, রাহুল হননি ৷ তাঁর পরিচয় সে সময় ‘অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়’ ৷ সেই নামেই আশীর্বাদ-সহ শুভেচ্ছাবার্তা লিখে দিয়েছিলেন লেখক ৷ ছন্দোময় হস্তাক্ষরে বইয়ের পৃষ্ঠায় এখনও উজ্জ্বল তাঁর স্বাক্ষর ৷

    এ দু’টি অমোঘ উপহারের ছবি শুক্রবার শেয়ার করে নিভৃতবাসী অভিনেতা স্মৃতিমেদুর ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: