Pori Moni | Bangladesh : 'দেশমাতা, আমায় একটু নিরাপত্তা দিতে পারেন?' কাতর আকুতি পরীমনির...

নিরাপত্তা চাইলেন পরীমনি

Pori Moni | Bangladesh : জামিন পেলেও এখনও একেবারেই ভাল নেই বাংলাদেশের অভিনেত্রী (Bangladesh actress) পরীমনি৷

  • Share this:

    ঢাকা : মাদক কাণ্ডে জামিন পেলেও এখনও একেবারেই ভাল নেই বাংলাদেশের অভিনেত্রী (Bangladesh actress) পরীমনি (Pori Moni)৷ প্রায় এক মাস জেলে কাটানোর পর মুক্তি পেয়েছেন ঠিকই, কিন্তু এখনও নিজেকে নিরাপদ বলে মনে করছেন না তিনি ৷ তাই নিরাপত্তার জন্য কাতর আকুতি জানালেন বঙ্গবন্ধু কন্যা, দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ৷

    দিনকয়েক আগে যে পুলিশকর্তার সঙ্গে চুম্বনের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল পরীমনির (Pori Moni)। সেই নিয়েও সরব হয়েছেন বাংলাদেশের অভিনেত্রী ৷ দীর্ঘ ২৬ দিন টানা জেল খাটার পর গত ২ সেপ্টেম্বর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন পরী৷ তবে বাড়ি ফেরার পরই তাঁর হাতে নোটিস ধরিয়েছেন বাড়িওয়ালা ৷ নোটিসে বলা হয়, অবিলম্বে তাঁকে সেই বাড়ি ছেড়ে দিতে হবে ৷ এই নোটিস পেয়ে মাথায় হাত পড়ে অভিনেত্রীর ৷

    আরও পড়ুন :  ‘পাশে আছি, কোনও চিন্তা কোরো না'! কার চিঠি প্রকাশ্যে আনলেন পরীমনি?

    দেশমাতাকে উদ্দেশ্য করে পরীমনি লেখেন "একজন রাস্তাতে থাকা মানুষের যেটুকু নিরাপত্তা, আমার সেটুকুও কি নেই?" সেইসঙ্গে পরীমনির প্রশ্ন, "আমি এখন কোথায় যাব! আমায় কি এ বার দেশ ছাড়তে হবে?" পরীমনির এই অবস্থা দেখে সরব হয়েছিলেন বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন ৷ একসময়ে তাঁকেও এই একই অভিজ্ঞতার শিকার হতে হয়েছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি ৷ দেশও ছাড়তে হয় তসলিমাকে। সেইসব কথা নিজের ফেসবুকে শেয়ার করেছিলেন লজ্জার লেখিকা।

    এ বার একইপথে কী পরী? দেশের কাছেই নিরাপত্তার আর্জি জানালেন পরীমনি৷ নিজের ফেসবুকের পাতায় তিনি লিখেছেন, "দেশমাতা, আমাকে কি একটু নিরাপত্তা দিতে পারেন! রাস্তায় মানুষগুলোও এত অনিরাপদ না । একবার একটু দেখেন না আমার দিকে, কি করে বেঁচে আছি।" অভিনেত্রীর এই কথায় স্পষ্ট নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি ৷

    এর আগেও তাঁর গ্রেফতারি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন পরীমনি ৷ আর জেল থেকে ফিরে তিনি সরব হয়েছেন তাঁর সঙ্গে পুলিশকর্তার ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসা নিয়ে৷ পরীর দাবি, ''আমার গাড়ি ও ফোন সব তদন্তকারী আধিকারিকরা নিয়ে নিয়েছেন । যে সমস্ত ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে, সেগুলি আমার ফোনেই ছিল । আমার ব্যক্তিগত ভিডিয়ো ফাঁস করার অধিকার কারও নেই ।''

    এমনকি গ্রেফতারির সময় ও জেলে তাঁকে হেনস্থা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন পরীমন ৷ শিগগিরই তিনি গোটা ঘটনা সামনে আনবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের অভিনেত্রী ৷ তিনি জোর গলায় জানিয়েছেন যে, তিনি নিরপরাধ৷ সে জন্যই তিনি শুরু থেকে শক্ত থেকে গোটা পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন৷ তিনি কোনও দোষ করলে আগেই ভেঙে পড়তেন বলে দাবি করেছেন পরীমনি৷ এর আগে তাঁর দাদুর লেখা একটি চিঠিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। তাঁর লড়াইয়ে যে তাঁর আদরের নানুর মানসিক শক্তি তাঁকে সাহায্য করছে এই কঠিন সময়ে সে কথাও জানিয়েছেন বাংলাদেশের এই বিতর্কিত অভিনেত্রী।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: