জন্মদিনে অনুরাগীদের শুভেচ্ছাস্রোতে সঙ্গীত পরিচালক জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়, ছবি-টুইটার

নতুন প্রজন্মের প্রিয় সঙ্গীত পরিচালক জিৎ গঙ্গোপাধ্যায় পেরিয়ে গেলেন ৪৪ টি বসন্ত ৷ সামাজিক মাধ্যমে অনুরাগীদের শুভেচ্ছাস্রোতে ভেসে গেলেন তিনি ৷

  • Share this:

    চন্দ্রজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নাম হারিয়ে গিয়েছে জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের আড়ালে ৷ এই নামেই তিনি উজ্জ্বল সঙ্গীত জগতে ৷ নতুন প্রজন্মের প্রিয় সঙ্গীত পরিচালক পেরিয়ে গেলেন ৪৪ টি বসন্ত ৷ সামাজিক মাধ্যমে অনুরাগীদের শুভেচ্ছাস্রোতে ভেসে গেলেন তিনি ৷

    টুইটারে তাঁকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন অগণিত অনুরাগী ৷ কেউ কেউ তাঁর গান গেয়েও শুনিয়েছেন ৷ নেটিজেনদের পাল্টা ধন্যবাদ জানিয়েছেন সঙ্গীত পরিচালক ৷

    বরানগর রামকৃষ্ণ মিশন আশ্রম হাই স্কুলের পরে জিৎ স্নাতক হন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৷ এর পর তাঁর জীবন জুড়ে শুধুই সপ্তসুর ৷ ‘যুদ্ধ’, ‘শুভদৃষ্টি’, ‘এমএলএ ফাটাকেষ্ট’, ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’, ‘চ্যালেঞ্জ’, ‘পরাণ যায় জ্বলিয়া রে’, ‘বাপি বাড়ি যা’-র মতো বক্সঅফিস সফল ছবির পাশাপাশি জিৎ সুর দিয়েছেন ছোটপর্দার ধারাবাহিক এবং বিজ্ঞাপনী জিঙ্গলসেও ৷

    অতিমারি এবং লকডাউনে জিৎও ঘরবন্দি ৷ ইদানীং যা কাজ করেছেন, সবই হয়েছে বাড়ি থেকে এবং ভার্চুয়ালি ৷ প্রথম দিকে অসুবিধে হলেও ধীরে ধীরে নিউ নর্মালের সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছেন তিনি ৷ তবে ভার্চুয়াল কনসার্টে তাঁর আপত্তি ৷ আমফানের জন্য একবার সে ধরনে কনসার্টে অংশ নিয়েছিলেন ৷ কিন্তু সে রকম বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া তাঁর কাছে অনুষ্ঠান মানে হলভর্তি দর্শক শ্রোতার সামনে গান গাওয়া ৷

     টলিউডের পাশাপাশি জিতের অনায়াস গতি মুম্বইয়েও ৷ গত বছর লকডাউনে দীর্ঘ দিন আটকে পড়েছিলেন মুম্বইয়ে ৷ সে সময় শিক্ষিকা স্ত্রী চন্দ্রাণীর সঙ্গে পরিযায়ী শ্রমিকদের চাল ডাল আটা তেলের মতো প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিলি করেছিলেন জিৎ৷ পাশাপাশি অতিমারি এবং লকডাউনে মন ভাল রাখতে অল্পবিস্তর রান্না করেছেন ৷ সময় পেলেই নিজেকে ডুবিয়ে দিয়েছেন বইয়ের পাতায় ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: