Indraneil Sengupta: তিনিই কি এ বার প্রদোষ মিত্রের ভূমিকায়? কোন ইঙ্গিত দিচ্ছেন কিরীটী রায়?

ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, ছবি-ফেসবুক

ইন্দ্রনীল সেনগুপ্তর প্রোফাইলে এই ছবি এখন ফেলুভক্তদের আলোচনা নতুন বিষয় ৷ তা হলে কি তাঁকেই এ বার দেখা যাবে প্রদোষচন্দ্র মিত্তিরের ভূমিকায় ? নাকি, এ নিছকই গ্রীষ্মকালীন অবসরযাপন?

  • Share this:

    কলকাতা:  মেঝের উপর রাখা ফেলুদা সমগ্রর দু’টি খণ্ড ৷ পাশে ছাইদানে রাখা সিগারেট থেকে পাক খাচ্ছে ধোঁয়ার কুণ্ডলী ৷ পাশে শুয়ে তিনি ৷ চোখ বন্ধ ৷ আলগোছে রাখা হাত পড়ে আছে কপালে ৷ ছবির ক্যাপশন, ‘গ্রীষ্ম’৷ ইন্দ্রনীল সেনগুপ্তর প্রোফাইলে এই ছবি এখন ফেলুভক্তদের আলোচনা নতুন বিষয় ৷ তা হলে কি তাঁকেই এ বার দেখা যাবে প্রদোষচন্দ্র মিত্তিরের ভূমিকায় ? নাকি, এ নিছকই গ্রীষ্মকালীন অবসরযাপন?

    ফেলুভক্তদের কাছে অবশ্য কল্পনায় মিলায় বস্তু ৷ তাই ছবির সঙ্গে অনুরাগীদের মন্তব্য ভেসে আসতে দেরি হয়নি ৷ অনেকেরই অনুমান, গোয়েন্দাপ্রবর কিরীটী রায় আসলে ইঙ্গিত দিচ্ছেন ৷ তাঁকে এ বার পর্দায় দেখা যাবে ফেলুদার ভূমিকায় ৷ তবে ইন্দ্রনীল এই ছবি এবং ক্যাপশনের বেশি আর কিছু ভাঙেননি ৷ নেটিজেনদের প্রশ্ন অবশ্য তাতে থামেননি ৷ সিগারেটটা কি চারমিনার? জানতে চেয়েছেন অনেকেই ৷ বেশিরভাগ নেটিজেনই জানিয়েছেন, ইন্দ্রনীলকে পরবর্তী ফেলুদা হিসেবে তাঁরা দেখতে চান ৷

    প্রসঙ্গত সত্যজিৎ রায়ের শতবর্ষপূর্তিতে একটি নতুন ফেলুদা কীর্তি সেলুলয়েডবন্দি করবেন সন্দীপ রায়, শোনা গিয়েছিল আগেই ৷ শুধু ফেলুদা একা নয়, জোড়া গল্পের সে ছবিতে থাকবে প্রোফেসর শঙ্কুর অভিযানও ৷ গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল, সেই ছবিতেই ইন্দ্রনীলকে দেখা যাবে বাঙালির প্রিয় প্রাইভেট ইনভেস্টিগেটরের ভূমিকায় ৷ তাঁর নাকি লুক টেস্টও হয়ে গিয়েছে ৷ কিন্তু এ সব রয়ে গিয়েছে গুঞ্জনের স্তরেই ৷ সম্ভাব্য ফেলুদা বা লুকটেস্টের খবর, কোনও বিষয়েই কোনও শিলমোহর আসেনি পরিচালকের তরফে ৷

    এদিকে গত শীতেই ওয়েবদুনিয়ায় টোটা রায়চৌধুরীর আত্মপ্রকাশ হয়েছে ফেলুদার ভূমিকায় ৷ সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় নতুন ফেলুদা-তোপসে-জটায়ু জুটির ‘ছিন্নমস্তার অভিশাপ’ দর্শকমহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেয়েছে ৷ একই কুশীলবদের নিয়ে সৃজিতের দ্বিতীয় ফেলু অভিযান ‘যত কাণ্ড কাঠমান্ডুতে’-এর ট্রেলর মুক্তি পেলেও ছবি এখনও অধরা ৷

    অন্যদিকে, ‘কিরীটী ও কালো ভ্রমর’ এবং ‘নীলাচলে কিরীটী’ ছবিতে ইতিমধ্যেই ইন্দ্রনীলের অভিনয় দক্ষতা ছাপ ফেলেছে গোয়েন্দাকাহিনির ভক্তদের মনে ৷ ‘গোগোলের কীর্তি’ ছবিতে তিনি অভিনয় করেছিলেন পুলিশ আধিকারিক অশোক ঠাকুরের ভূমিকায় ৷ ‘আসছে আবার শবর’-এ তাঁকে দেখা গিয়েছিল বিজয় সেনের চরিত্রে ৷

    তবে তাঁর নিজের পছন্দতালিকায় শীর্ষে ফেলুদাই ৷ ইন্দ্রনীল বছর দুয়েক আগে জানিয়েছিলেন সংবাদমাধ্যমে ৷ দ্বিতীয় স্থানে বিরাজমান ব্যোমকেশ ৷ কিরীটী সম্বন্ধে অভিনেতা জেনেছেন অভিনয়ের সুযোগ পাওয়ার পরই ৷

    তা হলে কি এ বার পূর্ণ হতে চলেছে ইন্দ্রনীলের অভিলাষ? তিনিই এ বার সন্ধ্যাশশী বন্ধু হয়ে মগজাস্ত্রে শান দিয়ে পর্দায় সূক্ষ্মসালসন্ধান করবেন? আপাতত অপেক্ষা ছাড়া অন্য পথ নেই ফেলুপ্রেমীদের কাছে ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: