মদ্যপ অবস্থায় মেয়ের বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে সঙ্গম, মাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলেন মেয়ে !

মদ্যপ অবস্থায় মেয়ের বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে সঙ্গম, মাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলেন মেয়ে !

গোটা খবরটা ছড়িয়েছে লস এঞ্জেলেসের এক চিকিৎসকের চেম্বার থেকেই ৷

  • Share this:

#লস এঞ্জেলেস: গোটা খবরটা ছড়িয়েছে লস এঞ্জেলেসের এক চিকিৎসকের চেম্বার থেকেই ৷ আর তা নিয়েই বিদেশি এক ম্যাগাজিন প্রকাশিত চাঞ্চল্যকর তথ্য ৷ বিদেশি ম্যাগাজিনেই সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে মার্কিন মহিলা জানিয়েছেন গোটা কাণ্ডটি ঠিক কীভাবে ঘটে৷ আপাতত গোটা ঘটনায় মানসিক দিক থেকে বিপর্যস্ত মহিলার এক মাত্র মেয়ে !

লস এঞ্জেলেসের ব্যাঙ্কে কাজ করেন মিলেনিয়া পার্কার ৷ মিলেনিয়ার মেয়ে অ্যাঞ্জেলা থাকেন লন্ডনে তাঁর বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে ৷ মিলেনিয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, ‘কয়েকদিনের ছুটি পেয়ে মেয়ের কাছে লন্ডনে গিয়েছিলাম৷ সেখানেই আমার মেয়ের বয়ফ্রেন্ড জিমির সঙ্গে আলাপ হয় ৷ খুবই ভালো ও সুদর্শন পুরুষ জিমি ৷ আমাদের মধ্যে বেশ বন্ধুত্ব হয়ে যায় অল্প সময়ের মধ্যেই৷ তবে এরকমটা যে ঘটে যাবে তা আগে বুঝতে পারেনি ৷’

মিলেনিয়া আরও জানান, ‘সেদিন মেয়ে একটা ছোট্ট পার্টির আয়োজন করে ৷ তাঁর বেশ কিছু বন্ধু এসেছিল সেই পার্টিতে ৷ পার্টিতে একটু বেশিই মদ খেয়ে ফেলি ৷ শরীরটা খারাপ লাগায় বেডরুমে জলদি গিয়ে শুয়ে পড়ি৷ তবে কিছুক্ষণবাদে অনু্ভব করে, আমার শরীরের ওপর একটা পুরুষের শরীর ৷ আমার গোপনাঙ্গে পুরুষের হাত৷ আমি কিছু বোঝার আগেই, আমার ঠোঁটে ঠোঁট বসিয়ে দেয় আমার মেয়ের বয়ফ্রেন্ড জিমি৷ আমি মদ্যপ থাকায় কিছুই করতে পারছিলাম না ৷ আর এভাবেই যৌনতায় লিপ্ত হয়ে পড়ি ৷ পরের দিন অবশ্য মেয়েকে সব জানাই৷ মেয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি ৷ উলটে আমাকে মানসিক ডাক্তারের কাছে নিয়ে আসে ! আর তারপর থেকেই কীভাবে ছড়িয়ে পড়ে গোটা খবরটা ৷’

First published: January 26, 2020, 7:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर