যাক বাবা! মা-বাবা-র বিয়েটা ভাঙল, ছোটবেলায় খুশি হয়ে গিয়েছিলেন বলিউডি এই নায়িকা

Bollywood gossip as shruti haasan says she was glad kamal haasan and sarika separated

বাবা-মায়ের ডিভোর্সে দারুণ আনন্দ পেয়েছিলেন, আচমকা একথা কেন বলছেন শ্রুতি হাসান?

  • Share this:

#চেন্নাই: বাবা-মায়ের সম্পর্ক নিয়ে একেবারে খোলামেলা কথা বললেন অভিনেত্রী শ্রুতি হাসান (Shruti Haasan)। কমল হাসান (Kamal Haasan) এবং সারিকা (Sarika) বিয়ে করেন ১৯৮৮ সালে। প্রায় ১৬ বছর এক সঙ্গে ঘর করার পর ২০০৪ সালে তারকা দম্পতির বিবাহবিচ্ছেদ হয়। শ্রুতি তখন কিশোরী ছিলেন। কমল এবং সারিকার একটি মেয়েও রয়েছে, নাম অক্ষরা হাসান (Akshara Haasan)। শ্রুতি বলেন তিনি আনন্দিত কারণ, তাঁরা আলাদা হয়ে গিয়েছে। কারণ, শ্রুতি মনে করেন তাঁরা দুজনেই আলাদা থাকতে চেয়েছিলেন, তাই তাঁরা আলাদা হয়ে গিয়েছেন।

Zoom Digital-কে শ্রুতি ঠিক এই কথাগুলোই বলেছিল। তিনি আরও বলেন, “তাঁর জীবনে বাবাই বেশি কাছের, মা তাঁর জীবনের একটি অংশ মাত্র”। তবে একথাও তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন যে, “বাবা-মা হিসেবে দুজনেই সেরা”। এছাড়া খুব স্পষ্ট ভাষায় অভিনেত্রী বলেন, "আমি তাঁদের নিজস্ব জীবনযাপনের জন্য কেবল উচ্ছ্বসিত ছিলাম। আমি খুশি হয়েছিলাম যে তাঁরা আলাদা হয়ে গিয়েছেন কারণ আমি মনে করি না যে দু'জন ব্যক্তি যারা একসঙ্গে থাকতে চান না, তাঁদের কোনও কারণে জীবনসঙ্গী হওয়া উচিত। তবে আমার মা ভালো কাজ করছেন এবং আমাদের জীবনের তিনিও একটি অংশ। এই কথা বলতে গিয়ে একটু আবেগপ্রবণও হয়ে পড়েন অভিনেত্রী। বলেন, "বাবা-মা যখন পৃথক হয়েছিল, তখন আমি খুব ছোট ছিলাম।"

শ্রুতি এখন নতুন কাজে ব্যস্ত রয়েছেন। রবিবার, তিনি Instagram-এ শেয়ার করেছিলেন যে তিনি তাঁর বাড়ির একটি অংশকে ডাবিং স্টুডিওতে পরিণত করেছেন। ক্যাপশনে লেখেন, “ডাবিং ফর্ম হোম গল মাই সাউনা / অডিও স্যুইট!”। তিনি আরও লেখেন, আমি এই ইউনিভার্স-কে কখনই ধন্যবাদ জানাতে ভুলি না, যে এই খারাপ পরিস্থিতিতেও আমাকে সুরক্ষিত রাখার জন্য। আমি প্রতি দিন প্রত্যেকের জন্য প্রার্থনা করি, যাতে অন্ধকার সময় সকলে ভালো থাকেন, "দয়া করে নিরাপদে থাকুন এবং আপনি যদি পারেন টিকা নিয়ে নিন”। শ্রুতি কিছু দিন আগে একটি ডিজিটাল সিরিজ শ্যুট করছিলেন, কিন্তু করোনা সংক্রমণ বাড়তেই তা বন্ধ রাখা হয়েছে। কবে চালু হবে তার এখন কোনও খবর নেই। তবে অভিনেত্রী নিজের বাড়িতেই স্টুডিও তৈরি করে কাজ করছেন।

Published by:Debalina Datta
First published: