ইয়াসের তাণ্ডব কলকাতায় কম হওয়ায় ‘ক্ষতি’ কাদের? অভিনেতা ভাস্বরের কটাক্ষ কোন দিকে?

ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়, ছবি-ফেসবুক

সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে সিইএসসি-র ৷ কটাক্ষ ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের ৷ শ্লেষ ও ব্যঙ্গের সুরে অভিনেতা পোস্ট করেছেন সামাজিক মাধ্যমের পাতাতেও ৷

  • Share this:

    কলকাতা : ইয়াস-এর হাত থেকে রেহাই পেয়ে কলকাতাবাসী স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন ৷ কিন্তু এতে সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে সিইএসসি-র ৷ কটাক্ষ ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ের ৷ শ্লেষ ও ব্যঙ্গের সুরে অভিনেতা পোস্ট করেছেন সামাজিক মাধ্যমের পাতাতেও ৷ তাঁর বক্তব্যকে সমর্থন করে অসংখ্য কমেন্ট এসেছে ৷ নেটিজেনদের মনে এখনও টাটকা আমফানের ভয়াবহ স্মৃতি ৷ কলকাতার বিস্তীর্ণ অংশে আমফান ও তার পরবর্তী সময়ে দীর্ঘ ক্ষণ ধরে বিদ্যুৎ বিপর্যয় চলেছিল ৷ অনেক ক্ষেত্রেই জনরোষের শিকার হয়েছিলেন বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাটি ৷

    তার পরেও জনগণের অভিযোগের তির থেকে রেহাই পায়নি সিইএসসি ৷ গ্রাহকদের অভিযোগ, আমফানের পরবর্তী সময়ে এই সংস্থা অনেক সময়েই ভূতূড়ে বিল পাঠিয়েছে ৷ যার সঙ্গে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সামঞ্জস্য নেই বলেই অভিযোগ ৷ অভিনেতা ভাস্বরের পোস্ট দেখার পর সেই স্মৃতিই তাড়া করেছে নেটিজেনদের ৷ ভাস্বরের বক্র ইঙ্গিত, কলকাতায় ইয়াসের তাণ্ডব হলে আখেরে সুবিধে হত সিইএসসি-রই ৷

    ছোট পর্দায় জনপ্রিয় মুখ ভাস্বর সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ সক্রিয় ৷ অতিমারির দ্বিতীয় তরঙ্গে তিনি কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন সমাজসেবামূলক কাজে ৷ মায়ের নামে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা শুরু করে দক্ষিণ কলকাতার বড় অংশে অসংখ্য মানুষের কাছে নিখরচায় পৌঁছে দিচ্ছেন দুপুর ও রাতের খাবার ৷ কলকাতার পাশাপাশি তিনি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন কাশ্মীরের দরিদ্র বাসিন্দাদের দিকেও ৷ তিনি এবং তাঁর কয়েকজন বন্ধুর এই উদ্যোগ সম্পূর্ণ রাজনৈতিক রংবিহীন ৷ দাবি ভাস্বরের ৷ তাই নিজেদের নাম দিয়েছেন ‘কালারলেস ভল্টান্টিয়ার্স’ ৷ তাঁদের উদ্যোগ সামিল হওয়ার আর্জি জানিয়ে ইতিমধ্যেই ফেসবুক লাইভে নেটিজেনদারে কাছে আর্জি জানিয়েছেন তিনি ৷ কোভিডে প্রিয়জনকে হারিয়েও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়াস অক্ষুণ্ণ রেখেছেন তিনি ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: