corona virus btn
corona virus btn
Loading

সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা: সলমন, করণ জোহর, আদিত্য চোপড়া, একতা কাপুর-সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের

সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা: সলমন, করণ জোহর, আদিত্য চোপড়া, একতা কাপুর-সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের
সুশান্ত সিং রাজপুত ও সলমন খান ৷ ফাইল ছবি ৷

কঙ্গনা রানাওয়াত, সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিং সাক্ষী হয়েছেন

  • Share this:

#বৈশালী: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলায় তদন্তে ইতিমধ্যেই বহু তথ্যের সন্ধান পেয়েছে মুম্বই পুলিশ ৷ ইতিমধ্যেই জেরা করা হয়েছে যশরাজ ফিল্মসের প্রাক্তন আধিকারিকদের, টানা ৯ ঘণ্টা ম্যারাথন জেরা করা হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি দিল বেচারার নায়িকা সঞ্জনা সাংভিকে ৷ যেখানেই বয়ানে অসঙ্গতি মনে হয়েছে সেখানেই বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ ৷ সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার কারণ কেউ দাবি করেছেন মানসিক অবসাদ, কেউ কেউ মনে করেছেন বলিউডের স্বজনপোষণ নীতির শিকার হয়েছেন তিনি ৷

পুলিশের সন্দেহের তালিকায় একাধিক হেভিওয়েট ৷ বিহারের বৈশালীর হাজিপুর আদালতে সলমন খান, করণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালী, আদিত্য চোপড়া, একতা কাপুর-সহ সাত জনের বিরুদ্ধে এক পরিবার মামলা দায়ের করেছে ৷ এই সাতজনকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর জন্য দোষারোপ করা হয়েছে ৷ জানতে পারা গিয়েছে মামলা দায়ের কারীরা জানিয়েছেন এই হেভিওয়েটদের ষড়যন্ত্রের কারণেই আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত ৷ এর সঙ্গে জানতে পারা গিয়েছে বিজেপি নেতা ডঃ আজিত কুমার সিং, বিশিষ্ট আইনজীবী শম্ভু সিং (যিনি এই মামলাটি লড়বেন), শিব কুমার এবং শিবপ্রতাপ মিশ্র অভিযোগ করেছেন বেশ কিছু সেলিব্রিটি সুশান্ত সিং রাজপুতকে বয়কট করেছিলেন বিভিন্ন ভাবে ৷ এরফলেই সুশান্ত সিং রাজপুত বাধ্য হয়েছিলেন আত্মহত্যা করতে ৷

এই মামলার আইনজীবী একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছিলেন ৭টি ছবি থেকে বাদ পড়েছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত ৷ একই সঙ্গে জানতে পারা গিয়েছে কঙ্গনা, সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিং-সহ ৫ জন এই মামলায় সাক্ষী হয়েছেন ৷ আদিত্য চোপড়া ও করণ জোহরের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করা হয়েছে যে, সুশান্ত সিং রাজপুতের পানি ছবি তাঁদের ষড়যন্ত্রেই মুক্তি পায়নি ৷

বেশ কয়েক মাস ধরেই মানসিক অত্যাচার সহ্য না করতে পেরেই আত্মহত্যা করেছেন সুশান্ত ৷ বিহারের মত পিছিয়ে পড়া রাজ্য থেকে সুশান্ত উঠে এসেছিলেন বলেই অনেক বঞ্চনা তাঁকে সহ্য করতে হয়েছে ৷ এমনটাই অভিযোগ করা হয়েছে ৷ এই মামলার শুনানি আগামী ৩ জুলাই মুজাফ্ফরপুর আদালতে ৷

Published by: Arjun Neogi
First published: July 1, 2020, 7:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर