• Home
  • »
  • News
  • »
  • entertainment
  • »
  • BOLLYWOOD WHEN DILIP KUMAR SPOKE ABOUT NOT HAVING ANY CHILDREN TO CARRY FORWARD HIS LEGACY WE HAVE NO REGRETS SR

Dilip Kumar Children: ‘কোনও অপরাধবোধ নেই’, বাবা না হওয়া নিয়ে কেন এ কথা বলেছিলেন দিলীপ কুমার

৫৪ বছর একে অপরের ভরসার কাঁধ হয়ে ছিলেন তাঁরা (Dilip Kumar-Saira Banu) । কিন্তু কেন তাঁদের কোনও সন্তান ছিল না । একবার সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন দিলীপ সাহাব ।

৫৪ বছর একে অপরের ভরসার কাঁধ হয়ে ছিলেন তাঁরা (Dilip Kumar-Saira Banu) । কিন্তু কেন তাঁদের কোনও সন্তান ছিল না । একবার সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন দিলীপ সাহাব ।

  • Share this:

    #মুম্বই: বর্ণময় ছিল তাঁর জীবন । ভারতীয় সিনেমার প্রথম ‘স্টার’ তিনি । তাঁর জীবনটাও যেন সিনেমার পর্দা থেকেই উঠে এসেছে । ৯৮ বছরে প্রয়াত হলেন দিলীপ কুমার (Dilip Kumar)। কিন্তু রেখে গেলেন একটা সাম্রাজ্য, ফেলে গেলেন স্বপ্নিল দুনিয়ার হাজারো গল্প । সেই রামধনু সুতো ধরে টানলেই সেখানে দেখা মিলবে প্রেম, বন্ধুত্ব, দাম্পত্য, গুজব, সম্পর্কের একাধিক রসায়নের হিসেবনিকেশের ।

    দুই বলি নায়িকা কামিনী কৌশল আর মধুবালার সঙ্গে দুরন্ত প্রেম । বিয়ে করেছিলেন নিজের অর্ধেক বয়সের সায়রা বানুকে (Saira Banu) । ৪৪ বছরের দিলীপের নতুন বৌ তখন মাত্র বাইশের । শুরু হল তাঁদের রূপকথার পথচলা । তাঁদের দাম্পত্য যেন চির নবীন, চির যুবতী। এমন আদর্শ দাম্পত্যের উদাহরণ বলিউডে খুব বেশি দেখা যায় না । ৫৪ বছর একে অপরের ভরসার কাঁধ হয়ে ছিলেন তাঁরা । কিন্তু কোনও সন্তান ছিল না তাঁদের ।

    ২০১২ সালে একবার হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে দিলীপ কুমার এ বিষয়ে মুখ খুলেছিলেন । বলেছিলেন, ‘হয়তো খুব ভাল হত আমাদের ছেলেমেয়ে থাকলে । কিন্তু আমরা ঈশ্বরের ইচ্ছা মেনে নিয়েছি । এ জন্য আমাদের কোনও দুঃখ নেই, অনুশোচনাও নেই । যদি শূন্যতার কথা বলেন, তা হলে সেটা নিয়েও আমাদের মধ্যে অনুযোগ নেই কোনও । আমাদের বিশাল পরিবার । আমার ভাইপো-ভাইঝি, তাঁদের সন্তানাদি রয়েছে । তাঁদের সঙ্গে হাসিতে, মজায় দিন কেটে যায় । সায়রা ছোট পরিবার । তাঁর ভাই সুলতানের ছেলেমেয়ে, নাতি-নাতনিরা রয়েছে । আমরা নিজেদের খুব লাকি মনে করি ।’’

    তা হলে তাঁর নিজের বংশ, তাঁর উত্তরাধিকারী কে হবেন, কে এই বিপুল মান, সম্মান, খ্যাতির ধারক-বাহক হবেন? এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে দিলীপ সাহাব উত্তর দেন, ‘‘আমি অনেক নায়ককে দেখেছি, আমার ধারা তাঁরা স্বেচ্ছায় বহন করতে ইচ্ছুক । একবার এক নব-প্রজন্মের ঝকঝকে তরুণ এসে আমাকে বলেছিল, স্যার আমি আপনার দেখা পথে চলতে চাই । এই কথা শুনে ঈশ্বরের প্রতি কৃতজ্ঞতায় আমার মন পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল । তিনি যা আমাকে দিয়েছেন, তা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না ।’’

    বহুদিন ধরেই ভুগছিলেন তিনি বার্ধক্যজনিত কারণে ভুগছিলেন ভারতীয় সিনেমার কিংবদন্তী দিলীপ কুমার (Dilip Kumar) । বুধবার সকালে ৯৮ বছরে প্রয়াত হলেন তিনি । শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় এর মধ্যে একাধিকবার হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল তাঁকে । বহু বার তাঁর মৃত্যুর গুজবও রটেছিল । কিন্তু সমস্ত গুঞ্জনকে মিথ্যে প্রমাণ করে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি । এ বার আর তা হল না । মুম্বইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে গত ৩০ জুন থেকে ভর্তি ছিলেন তিনি । গতকালও তাঁর স্ত্রী সায়রা বানু জানান, দিলীপ সাহাবের অবস্থার উন্নতি হচ্ছে । কিন্তু শেষ পর্যন্ত জীবন যুদ্ধে জয়ী হতে পারলেন না আর । সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়েও শতক ছোঁয়া হল না দিলীপ সাহাবের ।

    Published by:Simli Raha
    First published: