Aditya Chopra: ৫০-এ পা আদিত্য চোপড়ার! পরিচালকের জীবনের বেশ কিছু অজানা ঘটনা অবাক করার মতো

আদিত্য যখন DDLJ-ছবির কাজ শুরু করেন, তথখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৩ বছর।

আদিত্য যখন DDLJ-ছবির কাজ শুরু করেন, তথখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৩ বছর।

  • Share this:

#মুম্বই: তিনি বলিউডের একজন সফল চলচ্চিত্র নির্মাতা। তিনি একাধারে পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, পরিবেশক এবং প্রযোজক। ঠিক ধরেছেন, কথা হচ্ছে বলিপাড়ার অন্যতম মুখ আদিত্য চোপড়ার (Aditya Chopra) সম্পর্কে। তিনি দিলওয়ালে দুলহনিয়ে লে যায়েঙ্গে (Dilwale Dulhaniye Le Jayenge), রব নে বানা দি জোড়ি (Rab Ne Bana Di Jodi) এবং হাম তুম (Hum Tum)-এর মতো ছবির জন্যই বহুল পরিচিতি পান। আজ ৫০ বছরে পা-রাখলেন বিশিষ্ট এই চলচ্চিত্র নির্মাতা আদিত্য চোপড়া।

১. জাতীয় পুরষ্কার বিজয়ী পরিচালক-প্রযোজক তাঁর পরিচালনায় প্রথম দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে যায়েঙ্গে ছবির মাধ্যমে সারা দেশে ঝড় তুলেছিলেন। এই ছবিটি তৎকালীন সমস্ত ছবির রেকর্ড ভেঙে সাফল্য অর্জন করেছিল এবং ব্লকবাস্টার হিট হয়েছিল।

২. আদিত্য যখন DDLJ-ছবির কাজ শুরু করেন, তথখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র ২৩ বছর।

৩. ভালোবেসে তাঁকে ডাকা হয় ‘আদি’ বলে। মাত্র ১৮ বছর বয়সে তিনি বাবা যশ চোপড়ার (Yash Chopra) সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজ শুরু করেছিলেন। তিনি তাঁর বাবাকে চাঁদনি (Chandani), লমহে (Lamhe) এবং ডর (Darr)-এর মতো ছবি বানাতে সহায়তা করেছিলেন।

৪. মোটামুটি সকলেই জানেন যে আদিত্য চোপড়া খানিকটা অন্তর্মুখী স্বভাবের। ছোট বয়সে তাঁর গুরুতর Antisocial Personality Disorder (APD) ধরা পড়ে। তাঁর এমন অন্তর্মুখী হওয়ার কারণ হিসাবে এটাকেও বিবেচনা করা যেতে পারে। যদিও কিশোর বয়সেই এই ব্যাধি কাটিয়ে উঠেছিলেন তিনি।

৫. পরিচালক বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রানি মুখোপাধ্যায়কে (Rani Mukerji) বিয়ে করেছেন। তিনি তাঁর জন্ম তারিখটি স্ত্রী রানির সঙ্গে শেয়ার করেন। সব চেয়ে আকর্ষণীয় বিষয়টি হল, ২১ এপ্রিল ২০১৪ সালে এই জুটি সাত পাকে বাধা পড়েন।

৬. নির্দেশনা ও প্রযোজনার পাশাপাশি আদি একজন দক্ষ লেখকও। বেশ কিছু ছবির ডায়লগ তিনি নিজেই লিখেছেন। যেমন, DDLJ-ছবির "অ্যায়সা পেহলি বার হুয়া সাতরা আঠরা সালো মে", জব তক হ্যায় জান (Jab Tak Hai Jaan) ছবির "তেরি আঁখো কি নমকিন মস্তিয়া", ধুম ৩ (Dhoom 3) ছবির "বন্দে হ্যায় হাম উসকে"।

৭. করণ জোহরের (Karan Johar) সঙ্গে আদিত্য বেশ ভালো বন্ধুত্ব গড়ে তুলেছিলেন। আসলে আদিত্যই করণকে পেশা হিসাবে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য উৎসাহিত করেছিলেন।

৮. তাঁর প্রিয় বইগুলির মধ্যে রয়েছে, আয়ন র‌্যান্ডসের (Ayn Rand) দ্য ফাউন্টেনহেড (The Fountainhead), জেফারি আরচারের (Jeffery Archer) কেন অ্যান্ড আবেল (Kane and Abel) এবং জন গ্রিশামের (John Grisham) দ্য ফার্ম (The Firm)। তাঁর সর্বাধিক পছন্দ সিনেমা হল, প্যারাদাইসো (Paradiso), ইটি (ET), গুডফেলাস (Goodfellas), আওয়ারা (Awara), মুঘল-ই-আজম (Mughal-E-Azam), দিওয়ার (Deewar), কভি কভি (Kabhi Kabhie), চুপকে চুপকে (Chupke Chupke) এবং মাসুম (Masoom)।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: