‘দয়া করে JNU-র পাশে দাঁড়ান’, লাইভ ভিডিওয় কেঁদে ফেললেন স্বরা ভাস্কর

‘দয়া করে JNU-র পাশে দাঁড়ান’, লাইভ ভিডিওয় কেঁদে ফেললেন স্বরা ভাস্কর
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ফের জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনইউ)-তে রক্তক্ষয়ী হামলার ঘটনা দেখল গোটা দেশ ৷ রবিবার সন্ধ্যায় মুখে মুখোশ পরা কিছু দুষ্কৃতীএক অতর্কিতে জেএনইউ ক্যাম্পাসের তিনটি হস্টেলে হামলা চালায় বলে খবর ৷ হামলায় মাথা ফেটেছে ছাত্র ইউনিয়নের সভানেত্রী ঐশী ঘোষের ৷

জহওরলাল ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস ইউনিয়নের তরফে অভিযোগ, অতর্কিতে তাঁদের উপর হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী ৷ সকলেরই মুখ মুখোশে ঢাকা ছিল ৷ দুষ্কৃতীরা সকলেই অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের আশ্রিত বলে জানিয়েছেন তাঁরা। সরাসরি এভিবিপি-র দিকে আঙুল তুলেছেন স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সদস্যরা ৷

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর ৷ সকলকে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে জমায়েত হওয়ার আহ্বান জানান ৷ এবিভিপি-র এই তাণ্ডব ও দিল্লি পুলিশের নীরবতার প্রতিবাদে বাবা গঙ্গনাথ মার্গের সামনে জনসমাবেশের ডাক দিলেন স্বরা ৷

আজকের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, জনা পঞ্চাশেক দুষ্কৃতী সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ জেএনইউ ক্যাম্পাসে ঢোকে ৷ ভয় পেয়ে ছাত্রছাত্রীরা তখন এক অধ্যাপককে ফোন করে সাহায্য চান ৷ স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সহ-সভাপতি শাকেত মুন জানান, দুষ্কৃতীরা প্রতিটি ঘরে ঢুকে ছাত্রছাত্রদের এলোপাথারে মারতে থাকে ৷ শাকেত অভিযোগ করেন, নিরাপত্তারক্ষীরা নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছিলেন ৷ বাধাহীন ভাবেই এরপর হস্টেলে ঢুকে পড়ে দুষ্কৃতীরা ৷ বড় বড় পাথর ছুঁড়তে থাকে ৷ কয়েকটি গাড়ি পার্ক করা ছিল হস্টেলের বাইরে ৷ সেগুলিও ভেঙে দেয় তারা ৷ যে অধ্যাপকরা ছাত্রদের বাঁচাতে আসেন তাঁদেরও মারধর করা হয় ৷

এরপর ঘরে ঢুকে ঐশীকে মারাত্মভাবে মারধর করে দুষ্কৃতীরা ৷ ঘটনায় মারাত্মকভাবে জখম হন ঐশী ৷ তাঁর মাথা ফেটে যায় ৷ ঐশীকে এআইআইএমএস-এ নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৷

First published: 09:50:16 PM Jan 05, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर