বিনোদন

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত NCB-র হেফাজতে রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তী ও স্যামুয়েল মিরান্ডাকে রাখার নির্দেশ আদালতের

৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত NCB-র হেফাজতে রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তী ও স্যামুয়েল মিরান্ডাকে রাখার নির্দেশ আদালতের

শুক্রবার রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে Narcotics Control Bureau নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। মাদক চক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে শৌভিককে গ্রেফতার করে এনসিবি। গ্রেফতার করা হয় সুশান্তের হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকেও

  • Share this:

#মুম্বই:  ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্যামুয়েল মিরান্ডা ও শৌভিক চক্রবর্তী কে এনসিবি-র হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল আদালত। কিয়াজ ও জায়েদকে আগে থেকেই ৯ তারিখ পর্যন্ত হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছিল কোর্ট।

শুক্রবার রিয়া চক্রবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে Narcotics Control Bureau নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। মাদক চক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে শৌভিককে গ্রেফতার করে এনসিবি। গ্রেফতার করা হয় সুশান্তের হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকেও। শুক্রবার দিনভর জিজ্ঞাসাবাদের পর রাত ৯ টা নাগাদ মাদক সেবন ও পাচারের অভিযোগে শৌভিককে গ্রেফতার করে এনসিবি । শনিবার তাঁদের আদালতে পেশ করা হয়।

শুক্রবার সকাল থেকেই শৌভিক চক্রবর্তীকে জেরা করছে এনসিবি। জেরার মুখে অবশেষে সত্যি স্বীকার করলেন সুশান্ত মৃত্যু মামলার অন্যতম অভিযুক্ত রিয়া চক্তবর্তীর ভাই শৌভিক চক্রবর্তী! সূত্রের খবর, Narcotics Control Bureau নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো(এনসিবি NCB)-র লাগাতার জেরায় ভেঙে পড়েন শৌভিক, স্বীকার করে নিলেন ''রিয়াই নির্দেশেই ড্রাগ আনা হত।'' জেরার মুখে শৌভিক এও জানান, রিয়া একাধিকফ ড্রাগ ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে রিয়া চক্রবর্তীর। তাঁর নির্দেশেই সুশান্তের বাড়িতে মাদক আনা হত! সুশান্তের প্রাক্তন হাউজ ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডার মাধ্যমেই ড্রাগ কেনা হত বলে জানিয়েছেন শৌভিক।

সুশান্ত মৃত্যু মামলায় সিবিআই-এর পাশাপাশি তদন্ত করছে ইডি ও এনসিবি! শুক্রবার ২ ঘণ্টা তল্লাশি চালানোর পর এনসিবি-র অফিসাররা আটক করেন সুশান্তের হাউস ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে। শুক্রবার সকালে স্যামুয়েলের বাড়িতে হানা দেয় এনসিবির দল। মাদক চক্রে নাম উঠে এসেছে তার। শৌভিক চক্রবর্তীর হাত ধরেই মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে তার যোগাযোগ হয়, এমনটাই সূত্রের খবর। অন্যদিকে রিয়া ও শৌভিক চক্রবর্তীর বাড়িতেও রেড চালাচ্ছে এনসিবি। কে পি মালহোত্রার নেতৃত্বে চলছে এই তল্লাশি।

সুশান্ত মৃত্যুর তদন্তে মাদক যোগ পাওয়ার পরই তদন্তে যুক্ত হয় এনসিবি৷ রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে মামলাও করেছে তারা ৷ শৌভিকের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে উঠে আসে, একাধিক মাদক ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে তাঁর। সেই সূত্র ধরে ইতিমধ্যেই বসিত, ভিলাত্রা, ফৈয়াজ ও কাইজান নামে ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে NCB। জেরায় ৪ জনই স্বীকার করেছেন শৌভিকের সঙ্গে তাঁদের যোগাযোগের কথা! খোঁজ চলছে মাদক ব্যবসায়ী ফারুক বাটাটার।

ARUNIMA DEY

Published by: Rukmini Mazumder
First published: September 5, 2020, 2:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर